প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি মহেশখালীা উপজেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক আমিনুল হক চৌধুরী শাপলাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি রিয়াদ মোঃ আরাফত, পৌর যুবদলের সহ সভাপতি মফিজুর রহমান, কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি মিজানুর রহমান, পৌর ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক, একে রিফাতকে গ্রেফতারের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন মহেশখালী উপজেলা যুবদলের নেতৃবৃন্দ। উপজেলা যুবদলের নেতৃবৃন্দরা বলেন, মহেশখারী থানা পুলিশ বিনা কারণে বিএনপি নেতৃবৃন্দদের গ্রেফতার করে মহেশখালী রাজনীতির ইতিহাসে একটি কলঙ্ক জনক অধ্যায়ের সূচনা করেন। যে মহেশখালীতে কোন সময় রাজনৈতিক মামলা হামলা বা রাজনৈতিক গ্রেফতারের মত ঘটনা ঘটেনি। ছিল একটি রাজনৈতিক সহবস্থান। বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলসহ আমাদদের বিভিন্ন আন্দোলন, সভা, মিছিল ছিল সবসময় শান্তিপূর্ণ এবং গণতান্ত্রিক। কিন্তু কি কারণে কার মদদে মহেশখালী পুলিশ চা’র দোকান থেকে চা পানরত অবস্থায় বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে মিথ্যা বানোয়াট মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করে শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক পরিবেশকে নস্যাৎ করার চেষ্টা চালাচ্ছে।যা অত্যন্ত নিন্দনীয়ভাবে জনসমক্ষে প্রকাশিত হয়েছে। এমন আচরণ অগণতান্ত্রিক সরকারের স্বৈরচারী মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ বলে মনে করি। অবিলম্বে গ্রেফতারকৃত নেতাদের মিথ্যা বানোয়াট মামলা প্রত্যাহর পূর্বক মুক্তির দাবী জানাচ্ছি। মুক্তি দাবী করে বিবৃতি দিয়েছেন-মহেশখালী উপজেলা যুবদলের সভাপতি মোস্তফা কামাল, সাধারণ সম্পাদক আমান উল্লাহ আমান,সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন সরওয়ার, সহ সভাপতি মাষ্টার কবির আহমদ,যুগ্ম সম্পাদক আনছারুল করিম টিটু, মাতারবাড়ি ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি শামসুল আলম, সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন মানিক,মহেশখালী যুবদল নেতা আজিজুল করিম জয়,এস এম রহমত উল্লাহ, ধলঘাট যুবদল সভাপতি কলিম উল্লাহ সাগর, সাধারণ সম্পাদক ডা দেলোয়ার, কালারমছড়া ইউপি যুবদল সভাপতি ক ম আলমগীর, সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম ছাদেক, শাপলাপুর ইউপি সভাপতি রমিজ আলম, সম্পাদক সৈয়দুল করিম সুমন, কুতুবজোম সভাপতি রহমত উল্লাহ, সম্পাদক সম্পাদক আনছার উদ্দিন, ছোট মহেশখালী ইউপি যুবদল সভাপতি জসিম উদ্দিন, সম্পাদক নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •