মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিক, রামু:
মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সাবেক সাংসদ ও রাষ্ট্রদুত মরহুম ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরীর সহধর্মিনী বিশিষ্ট সমাজসেবিকা বেগম রওশন সরওয়ার আলম চৌধুরীর জানাযার নামাজ সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টায় রামু খিজারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাযায় হাজার হাজার মানুষ অংশ নিয়েছেন। জানাযার আগে উপস্থিত লোকজনের সামনে বক্তব্য রাখেন মরহুমার পুত্র সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, সোহেল সরওয়ার কাজল ও তানভীর সরওয়ার রানা।
জানাযায় অংশ নিয়েছেন মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক, জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন, পুলিশ সুপার ড. ইকবাল হোসেন, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কউক) চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহামদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, উখিয়া-টেকনাফ আসনের সাবেক সাংসদ মোহাম্মমদ আলী, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, জেলা আওয়ামীল লীগের সাবেক সভাপতি এড. আহামদ হোসেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি রহিম উদ্দীন, রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহাজাহান আলী এবং রামু উপজেলার সকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ। নামাজে ইমামতী করেন রামু কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব শামসুল হক।
উল্লেখ্য, বেগম রওশন সরওয়ার আলম চৌধুরী রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪টা ৫মিনিটে চট্টগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে মারা যান। তিনি কক্সবাজার-৩(সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল, রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সোহেল সরওয়ার কাজল, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী এবং বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী তানভীর সরওয়ার রানার মা।
বেগম রওশন সরওয়ার আলম চৌধুরী দীর্ঘদিন বাধ্যক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭১ বছর। মৃত্যকালে তিনি ৩ ছেলে, ৪ মেয়ে, নাতি-নাতনীসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগাহী রেখে গেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •