মোঃ নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ চট্টগ্রাম:
সাতকানিয়ায় বাগানের গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে ১ জন নিহত হয়েছে। নিহতের নাম আবদুস ছবুর (৪০)। সেই ওই এলাকার মৃত আ. রহমানের পুত্র।

৪ ফেব্রুয়ারী দিনগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার পশ্চিম বড়দুয়ারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বড়দুয়ারা এলাকায় বন বিভাগের জায়গা দখল করে গড়ে উঠা গাছ বাগানকে কেন্দ্র করে ঘটনাটি ঘটে বলে স্থানীয়রা জানায়।

এলাকাবাসী জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে নিহতের বড় বোন মমতাজ বেগমের সাথে উত্তর বাজালিয়া আহমদ কবিরের ছেলে আব্দুল গফুর মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। দেড় মাস আগে মমতাজের রোপন করা বাগানের গাছ কেটে ফেলে আব্দুল গফুর। এসময় বাধাঁ দিলে মমতাজ বেগমকে মারধর করে গফুর। পরে স্থানীয় ভাবে বিষয়টি সমাধান হয়। গত কয়েকদিন আগে একই জায়গা থেকে গফুর গাছ কাটলে আজ রোববার সন্ধ্যায় কলঘর এলাকায় নিহতের ভাই খায়ের আহমদের সাথে গফুরের হাতাহাতি হয়।

নিহতের ছোট ভাই ফয়েজ আহমদ বলেন, হাতাহাতির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গফুর রাতে আমাদের বাড়ির কাছে বাবুলের চায়ের দোকানে ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী নিয়ে বড় ভাইকে বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এতে ছবুর ভাই মাটিতে পড়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি বেসরকারী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে।

ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সেলিম নামের একজনকে গণধোলায় দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয়রা।

বাজালিয়ার ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আলী বলেন, বাবুলের দোকানে রাতে বসে চা পান করছিলেন ছবুরসহ কয়েকজন।এসময় হঠাৎ গফুর বেশ কিছু লোক নিয়ে এসে হামলা করে ছবুরকে ছরিকাঘাত করে। এতে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ছবুর মারা যায়। সাতকানিয়া থানার ওসি মো. রফিকুল হোসেন বলেন, গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে ছবুর নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সাথে সাথে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •