৬ স্লুইচগেইট বন্ধ, মাতারবাড়িতে ২হাজার একর জমিতে লবণচাষ বন্ধ

এম. বশির উল্লাহ, মহেশখালী:
মহেশখালীতে সরকারের উন্নয়ন কাজের স্বর্ণ দুয়ার মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মিত হচ্ছে। ২০১৪ সাল থেকে কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে স্থাপনের কার্যক্রম শুরু হলেও চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারী প্রধানমন্ত্রী ১৪ শত ১৪ একর জমির উপর কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের আনুষ্টানিক কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বাধ নির্মানের ফলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাধের ৬টি স্লুইচ গেইট পানি নিঃস্কাশনের পথ বন্ধ রয়েছে। ফলে ১৪ শত একর জমিতে স্থাপিত কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উত্তর পার্শ্বে ব্যাঙ ঘোনা, মইন্যার ঘোনা, রাঙ্গাখালী ঘোনা ও বাইন্যার ছড়া নামক চিংড়ি প্রজেক্টে প্রায় দুই হাজার একর জমিতে গ্রীষ্ম মৌসুমে পানির অভাবে লবণ চাষ করা যাচ্ছে না।একই সাথে বর্ষা মৌসুমের জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে প্রায় এক হাজার একর জমিতে ধান চাষ করাও অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। ৬টি বেড়িবাধ বন্ধ করে দিয়ে কয়লা বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ স্থায়ী বাধ নির্মান করে কোন ধরনের পানির নিস্কাশনের পথ না রাখায় একদিকে লবণ ও চিংড়ী চাষিরা ক্ষতিগ্রস্থ অপরদিকে ধান চাষী কৃষক,শ্রমিক এবং ব্যবসায়ীরা প্রচুর ক্ষতির শিকার হচ্ছে।
১৪শত একর জমির মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্থাপনা তৈরি হলেও এ জমিতে কয়লা বিদ্যুৎ হওয়ার আগে নিয়োজিত শ্রমিক, চাষী, ব্যবসায়ী সহ কোন শ্রমিক এই পর্যন্ত ক্ষতিপূরন পায়নি। ১৪ শত একর কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ক্ষতিপূরণের ৮০ভাগ টাকা পরিশোধ করা হলেও ভূমি মালিকদের ২০% ক্ষতি এখনো পরিশোধিত হয়নি। প্রাথমিক পর্যায়ে কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনে ক্ষতিগ্রস্ত ২১ ক্যটাগরী/ শ্রেণীর ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও নাম মাত্র জরিপ হয়েছে চাষি, বর্গা চাষি ও শ্রমিক সহ ৩ শ্রেণীর।
ভুক্তভোগীরা জানান, ২০১৪ সাল থেকে কয়লা বিদ্যুতের স্থায়ী বাঁধ নির্মানের ফলে সমগ্র মাতারবাড়ী ইউনিয়নে প্রতি বছর জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে।গত বছর বর্ষায় সৃষ্টি হওয়া জলাবদ্ধতার পানি নিছু জায়গায় এখনো জমে রয়েছে। সংশ্ণিষ্ট কতৃপক্ষ যদি দ্রুত পানি নিস্কাশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করে, তা হলে আগামী বর্ষা মৌসুমে মাতারবাড়ীর জনবসতি বসবাসের অনুপযোগি হয়ে জলাবদ্ধতার মুখে পড়বে।
ব্যাঙ ঘোনার সাথে আরো ৪টি চিংড়ী প্রজেক্টের আওতায় দুই হাজার একর লবণ মাঠের উপযুক্ত জমি পানির অভাবে কাধা মাটি ফেটে চৌচির হয়েছে।
 লবণ চাষ থেকে বঞ্চিত হওয়া জমির মালিক, চাষা, শ্রমিক, ব্যবসায়ী সকলে বেকার ও কর্মহীন জীবনযাপন করছে। স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্থ চাষী ও ব্যবসায়ী দোস্ত মোহাম্মদ বলেন, লবন চাষ না হওয়ায় শুধু জমির মালিক ক্ষতি হয়নি আমরা যার প্রতি কানি ৪০/৪৫ হাজার টাকায় বর্গা নিয়েছি তাদের সাথে লবণ মাঠের সাথে সংশ্লিষ্ট লবণ মাপার কয়াল, আলকদার,লবণ বোট মালিক ব্যবসায়ি , শ্রমিকদের কোটি কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। কোল্ড পাওয়ার জেনারেশন কোম্পনী লি:এর পক্ষে কোন প্রকার ক্ষতি পূরণ না দেওয়ার অভিযোগ তুলেন শ্রমিকরা।
কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজে নিয়োজিত কোলপাওয়ার জেনারেশন কোম্পানী লি: এমডি আবুল কাশেম এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,এক সাথে ২টি দাবী আদায় করা যায়না। বিগত বষার মৌসূমে এলাকার জনগনের দাবীর মুখে রাঙ্গাখালী সহ ঐ এলাকার স্লুইচ গেইট গুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়। ঐ স্লুইচ গেইট গুলি বন্ধ করতে ব্যায় হয়েছে ৫ কোট টাকা।
স্থানীয় চেয়ারম্যান মাষ্টার মোহামবমদ উল্লাহ জানান, কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের বাঁধের কারনে জমির মালিক,চাষা সহ লবণ ও ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। স্লুইচ গেইট গুলি দিয়ে পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে।আগামী বর্ষায় মাতারবাড়ীর নিচু এলাকার জনবসতি জলাবদ্বতায় পানির নীচে থাকবে। দ্রুত ক্ষতিগ্রস্থ জেলে ও জলাবদ্বতা নিরসনে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানান তিনি।
এ ব্যাপারে ককসবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী ছবুর খান বলেন, স্লুইচ গেইট স্থাপনের বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্যর মাধ্যমে কোল্ড পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানীর লিমিটেড এর কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তারা আর্থিক সহায়তা করলে পানি উন্নয়ন বোর্ড কারিগরি সহায়তায় পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। -মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বাধ নির্মানের বেড়িবাধের ৬টি স্লুইচ গেইট পানি নিঃস্কাশনের পথ বন্ধ থাকায় প্রায় ২ হাজার একর জমিতে লবণ চাষ হচ্ছে না। ফেটে চৌছির লবণ চাষ না হওয়া এলাকা।
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

খুটাখালী বিএনপি নেতা ডাঃ শফির পিতার ইন্তেকাল

ভারসাম্যপূর্ণ উন্নত বাংলাদেশ গড়ার কাজ করছে ইসলামী ব্যাংক

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ৮জন আসামী গ্রেফতার

নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের পিতার মৃত্যু : বিভিন্ন মহলের শোক

পেকুয়ায় মা-মেয়ের উপর হামলার ঘটনার মূলহোতা আব্বাস গ্রেপ্তার

সরকারের হুমকিতে দেশ ছাড়েন এস কে সিনহা : বিবিসির খবর (ভিডিও)

রামুতে শহীদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২১ সেপ্টেম্বর

সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা পেলেন কক্সবাজারের ৬ সাংবাদিক

মানবতার মূর্ত প্রতীক শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্র : মেয়র মুজিবুর রহমান

উদীচী, কক্সবাজার জেলা সংসদের দ্বিতীয় সম্মেলন বৃহস্পতিবার

বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে চকরিয়া-মহেশখালী ফাইনালে

মাদকে জড়িতদের বিরুদ্ধে আরো কঠোর হতে হবে -পুলিশ সুপার

সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে উখিয়ায় প্রশাসনের ব্যাতিক্রমধর্মী উদ্যোগ

২৩ সেপ্টেম্বর জনসভা সফল করতে নাজনীন সরওয়ার কাবেরীর গণসংযোগ

কবি আমিরুদ্দীনের পিতার মৃত্যুতে কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর শোক

কক্সবাজারে নবাগত পুলিশ সুপারের সাথে জেলা শ্রমিকলীগ নেতৃবৃন্দের সাক্ষাত

হোপ ফিল্ড হসপিটাল ফর উইমেন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন বৃহস্পতিবার

মাদাম তুসোর মিউজিয়ামে স্থান পেল সানি লিওন!

এবার বয়ফ্রেন্ডও ভাড়া পাওয়া যাবে!

হোপ ফাউন্ডেশন একদিন বাংলাদেশের ‘রোল মডেল’ হবে- ইফতিখার মাহমুদ