সম্প্রীতি সৃষ্টি করা সকল ধর্মের মানুষের দায়িত্ব : এমপি কমল

সোয়েব সাঈদ, রামু :

কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, সম্প্রীতি সৃষ্টি করা সকল ধর্মের মানুষের দায়িত্ব। সম্প্রীতি রক্ষার জন্য সকল ধর্ম-সম্প্রদায়ের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। সম্প্রীতি রক্ষার মাধ্যমে নিজের বাড়ি, সমাজ বা এলাকায় শান্তি ফিরে আসে। মায়ানমারে সহিংস ঘটনায় আমরা রামুবাসী বিশে^ প্রথম রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়েছি। কোন ব্যক্তিগত ঘটনার জন্য কোন সম্প্রদায়কে দায়ি করা যাবে না। সাংসদ কমল গতকাল বুধবার (৩১ জানুয়ারি) রামুতে শুভ মাঘী পূর্ণিমা উদযাপন উপলক্ষ্যে বৌদ্ধ মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

দুই দিনের অনুষ্ঠানের সমাপনী দিনের প্রথম পর্বে সভাপতিত্ব করেন, বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ, একুশে পদকে ভূষিত পন্ডিত সত্যপ্রিয় মহাথের। এতে প্রধান ধর্মদেশক ছিলেন, চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ে পালি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. জিনবোধি মহাথের। প্রধান অতিথি ছিলেন, স্বাধীনতা চিকিৎসা পরিষদ (স্বাচিপ) এর যুগ্ন সম্পাদক প্রফেসর ডা. উত্তম কুমার বড়–য়া। প্রধান বক্তা ছিলেন, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর সুমন বড়ুয়া।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাজাহান আলি, ওসি একেএম লিয়াকত আলী, ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমান, সাতকানিয়া ডিগ্রি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক বোধিরঞ্জন বড়ুয়া, চট্টগ্রাম কমার্স কলেজের অধ্যাপক সুষেন বড়ুয়া, চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের হিসাব রক্ষক বিপন বড়ুয়া। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রিয় সীমা বিহারের সাধারণ সম্পাদক তরুন বড়ুয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, মাঘী পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব পলক বড়ুয়া। অনুষ্ঠানে আশীর্বাদক ছিলেন, হাইটুপী বড় বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ পাঞ্চা দীপা মহাথের। ধর্মদেশনা করেন, বিমুক্তি বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের অধ্যক্ষ করুনাশ্রী থের, রাংকুট বনাশ্রম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ জ্যোতিসেন থের, মাঘী পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক শীলপ্রিয় থের।

অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন, উদযাপন পরিষদের অর্থ সম্পাদক শিক্ষক সুমথ বড়ুয়া ও নয়ন বড়ুয়া, স্বদীপ বড়ুয়া, সজল বড়–য়া, সোহেল বড়ুয়া, প্রণয় বড়–য়া পদ্ম, সন্তোষ বড়–য়া প্রমূখ নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল শুভ মাঘী পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ, একুশে পদকে ভূষিত পন্ডিত সত্যপ্রিয় মহাথেরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

উল্লেখ্য শুভ মাঘী পূর্ণিমা বৌদ্ধদের একটি অন্যতম ধর্মীয় উৎসব। এদিন গৌতম বৌদ্ধ তাঁর পরিনির্বানের কথা ঘোষনা করেন। বৌদ্ধের এরূপ সংকল্প গ্রহনের সংগে সংগে হঠাৎ ভীষন ভূ-কম্পন শুরু হয়। এসময় তাঁর শিষ্য ভিক্ষুগণ এর কারন জানতে চাইলে বৌদ্ধ বলেন, তাঁর পরিনির্বানের সংকল্পের কারনে এরুপ হয়েছে। অর্থাৎ তথাগতের জন্ম,মৃত্যু ও বৌদ্ধত্ব লাভকালে জগত এমনিভাবে আলোড়িত হয়। বুদ্ধের পরিনির্বানের কথা শুনে উপস্থিত ভিক্ষুরা বিষন্ন ও শোকাভিভুত হলে বুদ্ধ তাদের বলেন, মৃত্যু অবশ্যম্ভাবি, এজন্য দূঃখ করা অনুচিত। তোমরা সংকল্পবদ্ধ ও দৃঢ়চিত্ত হয়ে ধর্মচর্চা কর। তবেই জন্ম-জরা-ব্যাধি-মৃত্যুর এই সংসার উত্তীর্ণ হয়ে দূঃখকে জয় করতে পারবে। অর্থাৎ এদিনটির তাৎপর্য হলো আত্মশক্তির উন্নয়ন এবং সকল প্রকাশ ক্লেশ, বিনাশপূর্বক কল্যাণময় নির্বান লাভের সামথ্য অর্জন। এদিনটির আরো একটি শিক্ষা হলো মানুষ যদি আধ্যাত্মিক সাধনায় পূর্ণতা লাভ করে তাহলে সে নিজের জীবন-মৃত্যুকেও নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফ উপজেলা যুবদলের সম্মেলনকে ঘিরে প্রাণচাঞ্চল্য : চাপিয়ে দেয়া কমিটি মানবে না!

 বিচার শুরুর অপেক্ষায় খালেদা জিয়ার আরও ৭ মামলা

অক্টোবর থেকে সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচল শুরু

প্রধানমন্ত্রীকে আল্লামা শফীর অভিনন্দন

রাত ১০-১১টার পর ফেসবুক বন্ধ চান রওশন এরশাদ

আফগানদের কাছে বাংলাদেশের শোচনীয় পরাজয়

আজ পবিত্র আশুরা

দেশের স্বার্থেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন : প্রধানমন্ত্রী

সরকারের শেষ সময়ে আইন পাসের রেকর্ড

রাঙ্গামাটিতে ঘুম থেকে তুলে দু’জনকে গুলি করে হত্যা

শেখ হাসিনার গুডবুক ও দলীয় হাই কমান্ডের তরুণ তালিকায় যারা

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার নিয়ে ‘ধোঁয়াশা’ কাটবে এ মাসেই

বিষাদময় কারবালার ইতিহাস

পবিত্র আশুরা : সত্যের এক অনির্বাণ শিখা

নবাগত জেলা জজ দায়িত্ব গ্রহন করে কোর্ট পরিচালনা করলেন

নজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমান

কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে  “শুদ্ধ উচ্চারণ, আবৃত্তি, সংবাদপাঠ ও সাংবাদিকতা” বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা 

রামুর কচ্ছপিয়াতে রুমির বাল্য বিবাহের আয়োজন

সরকার শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে- এমপি কমল

আইসক্রিমের নামে শিশুরা কী খাচ্ছে?