খুটাখালীতে ওপেন সিক্রেট মাদক

সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও:
চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে ওপেন সিক্রেটে মাদক বিকিকিনি চলছে। স্থানীয়ভাবে তৈরি চোলাই মদ, গাঁজা,ইয়াবাসহ নানা ধরনের মাদক বেচাকেনা জমে উঠেছে। স্থানীয় যুবসমাজ মাদক সেবন ও ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ায় এলাকার আইনশৃংখলা অবনতির পাশাপাশি শংকিত অভিভাবক মহল।

স্থানীয়দের অভিযোগে জানা যায়, খুটাখালী বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে মাদক ব্যবসা নিয়ে যুবকদের কয়েকটি সিন্ডিকেট রয়েছে। প্রায় সময় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হাতাহাতি সংঘর্ষ হলেও প্রত্যক্ষদর্শীরা ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ার ভয়ে পুলিশের কাছে মুখ খোলেনা। যা কারনে এসব কারবারীদের নাম রয়ে যায় অজানা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইউনিয়নের কালাপাড়া, হারগেজা, ঈদগড়ের তৈরি চোলাই মদ এলাকার কতিপয় ব্যক্তি পাইকারীতে ক্রয় করে খুচরা মূল্যে বাজারজাত করছে। দেশীয় মদের পাশাপাশি বিক্রয় করছে গাঁজা-ইয়াবা। পার্শ্ববর্তী ডুলাহাজারা-ঈদগাঁও’র একাধিক সিন্ডিকেটের সাথে আঁতাত করে ইউনিয়নের কতিপয় বেশ ক’জন যুবক ইয়াবা পাচারে জড়িয়ে পড়েছে। তারা স্থানীয়দের চাহিদা মিটিয়ে বিভিন্ন এলাকায় নানা কৌশলে পাচার করছে ইয়াবা।

চকরিয়া থানা পুলিশ একাধিকবার অভিযান চালিয়ে ইয়াবা, গাঁজা ও চোলাই মদ জব্দ করে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের আটক করে থানায় মাদক আইনে মামলা করেছে। তাদের মধ্যে অনেকে স্থানীয়। তবে মাদক ব্যবসায়ীরা আটকের পর জামিনে মুক্তি পেয়ে ফের সিন্ডিকেট করে ব্যাপকহারে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। তারা মাদক ব্যবসায়ী ও পাচারকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান।

ইউপি চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুর রহমান বলেন, এসব ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না হলে সমাজ থেকে নির্মূল হবে না মাদক। উল্টো রাতারাতি বিত্তশালী হওয়ার লোভে মাদক ব্যবসার প্রসার আরো বাড়বে।

চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার এএসপি মো. কাজী মতিউল ইসলাম বলেন, যেখানেই মাদক সেখানেই পুলিশ কঠোর ব্যবস্থা নেবে। মাদক পাচার ও ব্যবসায়ীদের কোন ভাবেই ছাড় দেয়া হবে না।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

অনূর্ধ ১৭ ফুটবলে সহোদরের ২ গোলে মহেশখালী চ্যাম্পিয়ন

টাস্কফোর্সের অভিযানঃ ৪৫০০ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে ৭৫৫০টি ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এলোমেলো রাজনীতির খোলামেলা আলোচনা

কক্সবাজারে হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ফিরে পেলেন পর্যটক

সুষ্ঠু নির্বাচনে জাতীয় ঐক্য

সঠিক কথা বলায় বিচারপতি সিনহাকে দেশত্যাগে বাধ্য করেছে সরকার : সুপ্রিম কোর্ট বার

সিনেমায় নাম লেখালেন কোহলি

যুক্তরাষ্ট্রের কথা শুনছে না মিয়ানমার

তানজানিয়ায় ফেরিডুবিতে নিহতের সংখ্যা শতাধিক

যশোরের বেনাপোল ঘিবা সীমান্তে পিস্তল,গুলি, ম্যাগাজিন ও গাঁজাসহ আটক-১

তরুণদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটা অনেক বেশি জরুরি- কক্সবাজারে মোস্তফা জব্বার

চলন্ত অটোরিকশায় বিদ্যুতের তার, দগ্ধ হয়ে নিহত ৪

খরুলিয়ায় বখাটেকে পুলিশে দিলো জনতা, রাম দা উদ্ধার

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

সতীদাহ প্রথা: উপমহাদেশের ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়

খুরুশকুলে সন্ত্রাসী হামলায় কলেজ ছাত্র আহত

নুরুল আলম বহদ্দারের কবর জিয়ারত করলেন লুৎফুর রহমান কাজল

জীবনের প্রথম প্রচেষ্টাতে ঈর্ষনীয় সাফল্য মৌসুমীর

এলআইসিটি বেস্ট অ্যাওয়ার্ড পেলো চবি শিক্ষার্থী নিপুন