পেকুয়ায় রাস্তা তৈরি করতে অভিনব কৌশল!

মো. ফারুক, পেকুয়া:

পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়নের নাপিতখালী দক্ষিনপাড়া এলাকায় বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা নিতে অভিনব কৌশল গ্রহনের অভিযোগ ওঠেছে প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে দীর্ঘ ৪০ বছরের বসতবাড়ি বেদখল হওয়ার আশংকা করছে ভুক্তভোগিরা। এছাড়াও দু’পক্ষে এ নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

জানা গেছে, টইটং নাপিতখালী-মৌলভী বাজার সড়কের দক্ষিনপাড়ায় মৃত বদিউল আলমের পুত্র গোলাম মুস্তফা ও মৃত সিরাজ মিয়ার পুত্র মাহমদ হোছাইন দীর্ঘ ৪০বছর ধরে বসবাস করে আসছেন। এছাড়াও তাদের আশেপাশে শতাধিক বসতবাড়ি রয়েছে। যার যার চলাচলের রাস্তাও রয়েছে। কিন্তু বিগত কয়েকমাস আগে একই এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র মো: হেলাল গং তাদের বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা তৈরি করতে অভিনব কৌশল অবলম্বন করেন। এক পর্যায়ে গত ৪দিন আগে মো: হেলাল গং নাপিতখালী-মৌলভী বাজার সড়কে যেতে তাদের নিজস্ব জমির উপর একটি রাস্তা তৈরি করে। কিন্তু ওই রাস্তায় যেতে চাইলে গোলাম মুস্তফা ও মাহমদ হোছাইনের বসতবাড়ির উপর দিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও হেলাল গং তাদের জমি এক ব্যক্তিকে বিক্রি করেছে বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা তৈরি করে দিবে মর্মে চুক্তি সম্পাদন করে। ইতিমধ্য তারা রাস্তা তৈরি করতে নিষেধ করলে হত্যার মত হুমকি দিচ্ছে বলে ভুক্তভোগিরা জানিয়েছেন।

গোলাম মুস্তফার ছেলে মো: পারভেজ বলেন, আমরা ৪০ বছর ধরে দক্ষিনপাড়ায় বসবাস করে আসছি। ইতিমধ্যে আমাদের বসতবাড়ির উপর দিয়ে রাস্তা করতে মো: হেলাল গং স্থানীয় ছৈয়দ নুর, রমিজ উদ্দিন, শফি আলম ও মো: ইলিয়াছকে নিয়ে চক্রান্ত শুরু করেছে। পুলিশও নিয়ে এসেছিল। হুমকি দিচ্ছে যেকোন বিনিময়ে আমাদের বসতবাড়ির উপর দিয়ে রাস্তা নিয়ে যাবে। জোরপূর্বক রাস্তা করলে বাড়ির মহিলাদের চলাচল অনেক অসুবিধার সম্মোখিন হবে। আমরা এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন, ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

স্থানীয় আমানউল্লাহ চৌধুরী বলেন, মো: হেলাল গং তাদের সুবিধার জন্য ইতোমধ্য মসজিদের জমি দখল করে রাস্তাটি তৈরি করেছে। এ রাস্তা দিয়ে নাপিতখালী সড়কে যাওয়ার কোন সুযোগ নাই। তাই গোলাম মুস্তফার বসতবাড়ির ভিতর দিয়ে রাস্তা নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে তারা।

ইউপি সদস্য শাহাদত হোছাইন এ বিষয়ে বলেন, নাপিতখালী মেইন সড়কের পাশের্^ দীর্ঘ কয়েকবছর ধরে বসবাস করে আসছেন। ইতিমধ্য তাদের ভিটার উপর দিয়ে রাস্তা নিয়ে যাওয়া চেষ্টার কথা মৌখিকভাবে আমাকে জানিয়েছে। স্থানীয়ভাবে দুই পক্ষকে নিয়ে এ বিষয়ে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে জলবসন্ত রোগের প্রাদুর্ভাব

টেকনাফে ইয়াবাসহ রামুর নুর আটক

পেকুয়া বিএনপির ১১ নেতাকর্মী কারাগারে

চবি ছাত্রের কোটি টাকা উৎস ইয়াবা ব্যবসা!

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নতুন আতঙ্ক আরাকান আর্মি

মুসলিম উম্মাহকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

চট্টগ্রামে কাভার্ড ভ্যান চাপায় কলেজছাত্রীর মৃত্যু

২৭ ফেব্রুয়ারি বন্ধ হচ্ছে ৭ দিনের নিচের নেট প্যাকেজ

পেঁপে চাষে ভাগ্য বদল!

পেকুয়ায় পুকুরে পড়ে দুই সন্তানের জননীর মৃত্যু

উচ্ছেদ আতঙ্কে পশ্চিম বাহারছড়ার ৫০০ পরিবার

পেকুয়ার চেয়ারম্যান ওয়াসিমসহ ৭জন কারাগারে

জীবনে সফল হতে চান? আজ থেকেই পবিত্র কোরআনের চার পরামর্শ মেনে চলুন

প্রাথমিক-ইবতেদায়ির বৃত্তির ফল মার্চের প্রথম সপ্তাহে

আইসিসির নতুন প্রধান নির্বাহী ভারতীয় মানু সনি

জামায়াতের মনোযোগ সংগঠনে

কী ঘটতে যাচ্ছে ব্রিটেনে?

বদলে গেছে ফারজানা ব্রাউনিয়ার জীবন

আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছে বদির ভাই ও স্বজনেরা

হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় দারুল আরক্বমের দুই ছাত্রের কৃতিত্ব