এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও:

জীবন সংগ্রামে টিকে রয়েছে হতদরিদ্র পরিবারের এক পায়ে রিকসা চালক খুটাখালীর ফখরুল। কত কষ্টের বিনিময়ে পরিবার পরিজনের ভরন পোষন চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। প্রতিনিয়ত এক পায়ের উপর ভর করে খুটাখালীর প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলসহ ডুলাহাজারার সার্ফারী পার্ক এলাকায় অটোরিকসা চালিয়ে সংসার চালায় সে অসহায় ফখরুল ইসলাম। সে হচ্ছে চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীর পাগলির বিল কোনার পাড়ার ১নং ওর্য়াড কচ্ছপিয়া নামক এলাকার বাসিন্দা। বর্তমানে সংসার জীবনে তার দুই ছেলে এক মেয়ে রয়েছে। সংসার চালাতে জীবন যুদ্বে মরিয়া হয়ে ফকরুল ভাড়ায় চালিত রিকসা চালিয়ে দৈনিক ৪ থেকে ৫ শত টাকা আয় করে। কিন্তু কষ্ট করে আয় করা টাকা থেকে প্রতিদিন আড়াইশত টাকা রিকসা ভাড়া দিতে হয় মালিককে। বাকী টাকা দিয়ে কোনমতে ৫ জনের একটি পরিবারের ঘানি টানছে কষ্টের বিনিময়ে।

৭ জানুয়ারী সন্ধ্যার দিকে সাফারী পার্কের গেইটে এক পায়ে রিকসা চালক ফকরুলের দৃশ্যটি চোখে পড়ে মফি নামের এক ব্যাক্তি । তার কাছে জানতে চাইলে তিনি হতাশ কন্ঠে জানান, বিগত বহুবছর পূর্বে গাছ পড়ে পায়ে আঘাত হয়। এরপরে তার পা টি কেটে ফেলতে হয় । সে থেকে এক পায়ের উপর ভর করে এ সুন্দর ধরনীতে জীবন সংসার চালিয়ে যাচ্ছে। ঐ রিকসার যাত্রী সাদেক চালকের অবস্থা দেখে মলিন চেহারায় সহযোগিতার হাত বাড়ান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •