আবদুর রাজ্জাক,কক্সবাজার :
কক্সবাজারের মহেশখালীতে দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে আবচার নামের এক যুবলীগ নেতাকে জবাই করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সোমবার রাত ৯ টার দিকে উপজেলার হোয়ানকের কালাগাজিরপাড়া বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে। নিহত আবছার ওই এলাকার মৃত আবুল কালামের ছেলে বলে জানা গেছে।
স্থানীয় একাধিক সূত্র জানান, উপজেলার হোয়ানকের কালাগাজিরপাড়া বাজার এলাকায় রাত ৯ টার দিকে ১০-১২ জনের একদল দুর্বৃত্ত ফাঁকা গুলি করে আতংক সৃষ্টি করে। এ সময় বাজারের লোকজন দিগ্বিদিক ছুটে গেলে বাজারে অবস্থান করা মোহাম্মদ আবছার নামের এক যুবলীগ নেতাকে গুলি করে। এ সময় আবছার মাটিতে লুটে পড়লে তাকে জবাই করে সন্ত্রাসীরা। ফলে ঘটনাস্থলেই আবছারের মৃত্যু হয়। আবছার স্থানীয় ৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলে জানিয়েছেন তার ছোট ভাই নুরুল আমিন। হামলাকারীদের মধ্যে আয়ুব আলী, আবু আহমদ, জসিম, আনোয়ার, আমিরুল ও কায়সার ছিল বলে তিনি জানান।

এদিকে ঘটনার পর আবছারের লোকজন বাজারে এসে হামলাকারীদের লক্ষ্য করে গোলাগুলি শুরু করে। রাত ১০টার দিকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় গোলাগুলি চলছে বলে জানা গেছে। বিভিন্ন সূত্র জানায়, এলাকার সন্ত্রাসী জোনাব আলী বাহিনী ও জালাল বাহিনীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করেই জোনাব আলী বাহিনীর হাতে আবছার খুন হয় বলে জানা গেছে। পরিবারের পক্ষ থেকে আবছারকে যুবলীগ নেতা বলে দাবি করা হলেও উপজেলা যুবলীগ বলছে-নিহত আবছার যুবলীগের কেউ নয়। সংঘর্ষেও বিষয়টি নিশ্চিত করে মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, পুলিশের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •