কাবুলে সংবাদ সংস্থার কার্যালয়ে হামলায় নিহত ৪০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি আত্মঘাতী হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত এবং আরও ৩০ জন আহত হয়েছে। কাবুলের পশ্চিমাঞ্চলে একটি শিয়া সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংস্থা এবং একটি সংবাদ সংস্থার কার্যালয়ের কাছে ওই হামলা চালানো হয়। খবর বিবিসি, আল জাজিরা।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকালে দেশটির সংবাদ সংস্থা ‘আফগান ভয়েস অব এজেন্সি’ এবং শিয়াদের সংগঠন ‘তিবয়ান সাংস্কৃতিক কেন্দ্র’র কাছেই এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

একজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছেন আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিবিসিকে জানিয়েছে, ওই আত্মঘাতী হামলার আগেই আরও দু’টি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

এখনও পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী ওই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে বেশ কিছু সূত্রের খবরে জানানো হয়েছে, কাবুলের ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। তবে আইএসের তরফ থেকে এখনও ওই হামলা সম্পর্কে কোনো ধরনের বক্তব্য বা দায় স্বীকার করে কিছু বলা হয়নি।

দেশটিতে সাম্প্রতিক সময়ে শিয়া জনগোষ্ঠীকে লক্ষ্য করে বেশ কয়েকবার এ ধরনের হামলা চালিয়েছে আইএস। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে তালেবানও বেশ কিছু হামলা চালিয়েছে। তবে এ হামলার পেছনে নিজেদের সম্পৃক্ততা নেই বলে জানিয়েছে তালেবান।

প্রতক্ষ্যদর্শীর বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, সকালে ওই শিয়া সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে যখন লোকজন জমায়েত হচ্ছিল, সে সময় বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় হামলাকারী। এতে ঘটনাস্থলেই ৪০ জনের মৃত্যু হয়। আহত হন অনেকেই।

তালেবান সাংস্কৃতিক সেন্টার এবং আফগান ভয়েসকেই হামলার লক্ষ্য করা হয়েছিল। একটি আলোচনা সভায় জড়ো হওয়া লোকজনের মধ্যে বহু শিক্ষার্থীও ছিল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আফগানিস্তানে সোভিয়েত অভিযানের ৩৮ তম বার্ষিকী পালনের বিষয়ে এক অনুষ্ঠান চলার সময় ওই হামলা চালানো হয়।

মোহাম্মদ হাসান রাজায়ি জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের পর ভবনের ভেতরে আগুন ধরে যায় এবং চারদিকে ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়ে। সবাই সে সময় সাহায্য চাচ্ছিল।

আফগান ভয়েসের সাংবাদিক সায়েদ আব্বাস হুসেইনি বলেন, ওই হামলায় এক সাংবাদিক নিহত এবং আরও দু’জন আহত হয়েছেন। হামলায় আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি মুখপাত্র নাসরাত রহিমি বিস্ফোরণে ৪০ জন নিহত এবং ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন।

সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ হওয়া ছবিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে। বিস্ফোরণের পর হতাহত অনেকেই মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

এর আগে গত মে মাসে জালালাবাদে আফগান রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ভবনে হামলা চালায় আইএস।ওই হামলায় ছয় জন নিহত হয়। এছাড়া গত নভেম্বরে বেসরকারি সামসাদ টেলিভিশন স্টেশনে আইএসের হামলার ঘটনায় এক নিরাপত্তারক্ষী নিহত হয়।

সর্বশেষ সংবাদ

ইসলামে মাতৃভাষার গুরুত্ব ও তাৎপর্য

ঈদগাঁওতে পুজা কমিটির সম্মেলন নিয়ে সংঘাতের আশংকা

কক্সবাজার সিটি কলেজে শিক্ষকদের জন্য আইসিটি প্রশিক্ষণ শুরু

উখিয়ায় হাতির আক্রমণে রোহিঙ্গা যুবকের মৃত্যু

এস আলম গ্রুপের ৩ হাজার ১৭০ কোটি টাকার কর মওকুফ

মালয়েশিয়ায় ভবনে আগুন : বাংলাদেশিসহ নিহত ৬

মহেশখালীতে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে মোস্তফা আনোয়ার

চকরিয়ায় ইয়াবাসহ দুই ব্যবসায়ী আটক

চকরিয়ার চেয়ারম্যান পদে ২ জনসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

কোর্টরুমে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে হবে : প্রধান বিচারপতি

পেকুয়ায় স্থাপনা নির্মাণ বন্ধ ও গাছ জব্দ

অধ্যাপক শফিউল্লাহ একজন চেইঞ্জ মেকার

মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ২০১২ এর উপর কর্মশালা

চকরিয়ায় জায়গার বিরোধে গোলাগুলিতে নিহত-১, গুলিবিদ্ধ-১৫

‘মাদকের একাধিক তালিকায় সোহাগের নাম আছে’

কুতুবদিয়াকে দ্বীপ উপজেলা ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ

চকরিয়া মহাসড়ক কিনারায় বেপরোয়া পার্কিং, ঝুঁকিতে শিক্ষার্থীরা

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ৪ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

প্রথম বিয়ে নিয়ে লুকোচুরি: একাই ঘুমের মধ্য শামীমকে খুন করে আশা

ন্যায্য মূল্য ও ঘুষ প্রতিরোধসহ ৮ দফা দাবিতে মহেশখালীবাসীর মানববন্ধন