ডেস্ক নিউজ:

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানা এলাকায় প্রবাসীর বাড়িতে ঢুকে চার নারীকে ধর্ষণের ঘটনার আরো একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। তার নাম মো. আব্দুল হান্নান প্রকাশ হান্নান মেম্বার (৪৫)।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হান্নানকে নগরীর কোতয়ালী মোড় থেকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় মোট ছয়জনকে গ্রেফতার করা হলো।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক (মেট্রো) সন্তোষ কুমার চাকমা জানান, গ্রেফতার আবু সামা তার জবানবন্দিতে জানিয়েছেন, হান্নানই মূল পরিকল্পনাকারী। তবে আমরা এ বিষয়ে পুরোপুরি নিশ্চিত নয়। আমরা সেটি তদন্ত করে দেখছি।

পুলিশ কর্মকর্তার বড় ভাই আব্দুল হান্নান কর্ণফুলী উপজেলার বড়উঠান ইউনিয়নের ইউপি সদস্য প্রার্থী ছিলেন। এলাকায় তিনি হান্নান মেম্বার নামে পরিচিত।

মঙ্গলবার থেকে চাঞ্চল্যকর এই মামলাটির তদন্তভার নেয় পিবিআই। তদন্তে নেমেই পিবিআই আব্দুল হান্নান ছাড়াও মিজান মাতব্বর ও আবু সামাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। তার আগে পুলিশ গ্রেফতার করে মো. আবু, মোহাম্মদ ফারুকী ও ইমতিয়াজ উদ্দিন বাপ্পিকে। মিজান ও আবু সামার জবানবন্দিতে এ তিনজনের সম্পৃক্ততার বিষয়টি আসেনি। তবে আবু সামার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আব্দুল হান্নান ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী।

গত ১২ ডিসেম্বর গভীর রাতে কর্ণফুলী উপজেলার বড়উঠান ইউনিয়নের এক বাড়িতে ডাকাতির সময় তিন প্রবাসী ভাইয়ের স্ত্রী ও তাদের এক বোনকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের শিকার নারীরা ঘটনার পরদিন মামলা করতে গেলে ঠিকানা জটিলতার কথা বলে মামলা নিতে গড়িমসি করে পুলিশ। পরে ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর হস্তক্ষেপে পাঁচ দিন পর মামলা নেয় পুলিশ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •