ফরিদুল অালম দেওয়ান, মহেশখালী:

মহেশখালীতে  ২টি প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। অাকাশে উড়ন্ত অবস্থায় দু’বিমানের মধ্যে সংঘর্ষে এ বিমান দূর্ঘটনা ঘটে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে  বুধবার সন্ধ্যা ৬: ৩৫ মিনিটে মহেশখালী উপজেলা সদরের পুটিবিলা এয়ার মোহাম্মদ পাড়া ও ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের মাইজ পাড়া এলাকায়।

এ বিমান দূর্ঘটনায়  ৪ জন পাইলটকে ঘটনাস্থলের অদুরে সোনাদিয়ার চর ও হামিদার দিয়া চর থেকে অক্ষত অবস্থায় জীিবত উদ্ধার করা হয়েছে বলে স্থানীয় প্রশাসন সুত্র জানান। তারা প্যারাসুট যোগে নিরাপদে অবতরন করেছে বলে জানা গেছে। উদ্ধারকৃত পাইলটরা হচ্ছে, ক্যাপ্টেন শরীফ। স্কোয়ার্ডন লিডার মনির,উইং কমান্ডার অাজিম ও উইং কমান্ডার রাজিব বলে জানা গেছে। মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: অাবুল কালাম ও থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, অাহত ৩ জন পাইলটকে বিমান বাহিনীর  হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয় হয়েছে। অারেক জনকে দেরীতে পাওয়া যাওয়ায় তাকে নদী পথে ককস বাজার হয়ে তাকেও হেলিকপ্টারে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়।

ঘটনাস্থলে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রথম বিমান টি পড়ে মহেশখালী পৌর এলাকার পুটিবিলা পাল পাড়া ও এয়ার মোহাম্মদ পাড়ার মধ্যবর্তী একটি পুকুর পাড়ে ওই গ্রামের নজু মিয়ার পুত্র আব্দু ছাত্তারের বাড়ীর রান্না ঘরের উপর। এতে ও বাড়ীর ভিতরে থাকা দু’শিশু সহ ৪ জন অাহত হয়েছে। অাহতরা হচ্ছে ফয়সল (২২),খদিজা (৩৫),অাঁখি (১০)  ও অাব্দু ছাত্তার (৩০)।

ঘটনাস্থলের বাসিন্দা মহেশখালী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জহির জানান, ঘটনার সময় তিনি ঘটনাস্থলের পাশে ছিলেন। এসময় অাকাশে একটি বিমানে অাগুন লাগা অবস্থায় তার গ্রামেন উপর দিয়ে দুই তিনটি চক্কর দিয়ে হঠাৎ বিকট শব্দে পড়ে যায়। এতে আগুন ধরে গেলে গ্রামের লোকজন পালাতে থাকে। ওই বিমান টি অাকাশেই ভেঙ্গে গিয়ে এর পাইলটের একটি অাসন ঘটনাস্থল থেকে আধা কি: মি: দক্ষিণে দাসি মাঝির পাড়ায় পড়ে যায়। ঘটনার সাথে সাথে মহেশখালী থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস অকুস্থলে গিয়ে অাগুন নেভান।

অপর বিমানটি পড়ে মহেশখালী পৌরসভার সংলগ্ন ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের মাইজ পাড়া গ্রামে। দুটি বিমান দূর্ঘটনার দুরত্ব প্রায় সাড়ে ৩ কি: মি: হবে।  ঘটনাস্থল দুটিতে হাজার হাজার উৎসুক জনতা ভিড় জমানোর করনে পুলিশ ও অাইন শৃংখলা বাহিনীকে হিমশিম খেতে হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •