লোহাগাড়ায় অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক ২

জাহেদুল ইসলাম, লোহাগাড়া: 

লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোহাম্মদ সাইদ (১৭) নামের ১ ছেলের ব্যাগের ভিতর ৩ রাউন্ড তাজা কার্তুজ দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিরেশর হাতে ফেঁসে গেলেন ২ জন। তারা হলেন, মোহাম্মদ মাহি উদ্দিন (২৮) ও শুবল দাশ(২৬)। এ ব্যাপারে লোহাগাড়া থানায় ৭ জনকে আসামী করে পৃথক পৃথক ২টি মামলা রুজু হয়।

জানা যায়, গত ২৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া বাজারে উত্তর পাশে হলুদ,আব্দুস ছবুরের মরিচ ভাঙ্গার মিশনের দোকানের সামনে থেকে ভিকটিম সাইদকে জোর পূর্বক তুলে পদুয়া বড় মন্দিরের উত্তর পাশে নিযে গিয়ে মারধর করে ভিকটিমের ব্যাগের ভিতর ৩টি তাজা কার্তুজ দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে লোহাগাড়া থানা পুলিশের এসআই সোহরাওয়ার্দী সঙ্গয়ি ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল হতে ভিকটিম উদ্ধার করে।

পুলিশ আসার খবর পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টার সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসলেন থলের বিড়াল। ফেঁসে গেলেন মহিউদ্দিন ও শুবল। পালাতক রয়েছেন মামলার আসামী, পদুয়া মমতাজ মেম্বার বাড়ির সাব্বির আহমদের পুত্র মো: জাহেদুল ইসলাম,নিজ তালুকক এলাকার মৃত সৈয়দ আহমদেও পুত্র মো: হেলাল উদ্দিন, ফরিয়াদিওকুল এলাকার আবুল কাশেমের পুত্র মো: সেলিম, নয়া পাড়া এলাকার তৌহিদুর ইসলাম ও সেগুন বাগান জলদাশ পাড়ার মৃত আবদুল মতলবের পুত্র আব্দুর আজিজ।

ভিকটিম সাইদ সাতকানিয়া উপজেলার উত্তর ছদাহা হাঙ্গর রাজঘাটা এলাকার আহমদ কবিরের পুত্র। সে গাছবাড়িয়া সরকারি করেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র।

সাইদ জানান, গত ৪/৫ মাস পূর্বে মামলার আসামীদের সাথে মারামারি হয়। তারই জের ধরে ঘটনার দিন তাকে আটক করে মারধর করে। তার ব্যাগের ভিতর জোর পূর্বক ৩ টি কার্তুজ দিয়ে ফাঁসাতে চেয়েছিল। কিন্তু পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সে বেঁচে গেল। উল্টো ফেঁসে গেলেন প্রকৃত আসামীরা।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ শাহজাহান পিপিএম বার বলেন, এক কলেজ ছাত্রকে পূর্ব শত্রুতার জের ধওে মরধর করে ৩ টি কার্তুজ দিয়ে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভিকটিম ও ঘটনার সাথে জড়িতদের থানায় নিয়ে আসে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে এসেছে প্রকৃত রহস্য। ভিকটিমকে তার পরিবারের কাছে হস্থান্তর করা হয়। দৃত ও পালাতক আসামীদেও পরস্পর যোগসাজসে ও জ্ঞাতসাওে বে-আইনী ভাবেআগ্নেয়াস্ত্রে ও কার্তুজ তাহাদের হেফাজতে রাখিয়া ১৮৭৮ সনের আইনের ১৯(এফ) অপরাধ করেছে। আসামীদেও বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রুজু হয়। ভিকটিমের বড় ভাই শহিদুর ইসলাম বাদী হয়ে পৃথক আরেকটি মামলা রুজু করেন।

এ ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের জন্য এলাকাবাসী লোহজাগাড়া ওসি শাহজাহান পিপিএম বারকে সাধুবাদ জানান।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

বিএনপি নেতা হাবিব-উন-নবী খান সোহেল গ্রেফতার

রামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫

কক্সবাজারে প্রথম নির্মিত হচ্ছে সি,আই কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রি

মহেশখালী পৌর ছাত্রদলের আংশিক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

এসপি মাসুদ হোসাইনের কক্সবাজারে যোগদান, ডিসি’র সাথে সৌজন্য সাক্ষাত

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য ইওসি স্থাপন

পেকুয়ায় প্রবাহমান খালে মাটি ভরাট করলেন প্রভাবশালী

কোনাখালীতে দোকান পুড়ে ছাই

বুবলীর সঙ্গে শাকিবের বিয়ে, গুঞ্জন নাকি সত্যি?

সাবেক ডিসি ও ইউএনওসহ তিনজনের কারাদণ্ড

ইয়াবাসহ আইন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আটক

চকরিয়া উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ

চকরিয়ায় কথিত চিকিৎসকের ভূল চিকিৎসার শিকার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী

রামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫

মালুমঘাটে প্রভাবশালীর সহযোগিতায় চলছে বাল্য বিবাহ!

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ

নিরাপদ সড়ক চাই: নিজে বাঁচব, অপরকে বাঁচাব

বিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্ত

চবি উপাচার্যের সাথে মিশর আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে সংবর্ধনা