ডেস্ক নিউজ:

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, দেশের বিভিন্ন কারাগারে আটক বন্দিরা প্রতিমাসে দুদিন স্বজনদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলার সুযোগ পাবেন।

বুধবার নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে নবনির্মিত গার্মেন্ট ইন্ডাস্ট্রি এবং জামদানি উৎপাদন কেন্দ্র ‘রিজিলিয়ান্স’ এর উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অনেক কারাবন্দি তাদের পরিবার পরিজনের সঙ্গে কথা বলতে চায়। সেক্ষেত্রে কারাগারে কঠোর নিয়ম মেনে নতুন করে মোবাইল ফোনে কথা বলার সুযোগ দেয়া হবে। এমনকি প্রয়োজনে কথোপকথনের ভয়েস রেকর্ড সংরিক্ষত রাখা হবে। মাদক নিয়ন্ত্রণে একের পর এক পদক্ষেপ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। মেটাল ডিটেক্টর বসানো হচ্ছে। কিন্তু এর ফাঁক ফোঁকর দিয়েও মাদক ঢুকছে। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি, যাতে কোনোভাবেই মাদক কারাগারে প্রবেশ করতে না পারে ও বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের প্রায় পুলিশ স্টেশনেই গাড়ি সমস্যা আছে। এছাড়া গত সাড়ে ৯ বছরে ৮০ হাজার পুলিশ লোকবল বাড়ানো হয়েছে। পুলিশ এখন আগের চেয়েও দক্ষ। প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় কাজ করছি বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। মাদকের ব্যাপারে মিয়ানমারের প্রধানমন্ত্রী অং সান সু চির সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনি অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন। কারণ তার দেশেও যুব সমাজ ইয়াবায় আসক্ত হয়ে যাচ্ছে। আমি তাকে জানিয়েছি সীমান্তের আশপাশের এসব কারখানা বন্ধ করে দিতে। তিনি আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন। আজ না হয় কাল কিন্তু এক সময়ে তা বন্ধ হবেই।’

এদিকে সকালে মন্ত্রী প্রথমে কারাগারে এসে ‘রিজিলিয়ান্স’ নামের গার্মেন্ট ইন্ডাস্ট্রি ও জামদানি পণ্য উৎপাদন কেন্দ্র উদ্বোধন করেন। পরে গার্মেন্টসহ জামদানি পণ্য উৎপাদন করছে এমন প্রতিটি ফ্লোরে গিয়ে ঘুরে দেখেন এবং কারাবন্দিদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে তিনি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সম্মেলন কক্ষ উদ্বোধন করেন এবং আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে মতবিনিময় করেন।

সবশেষ মন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার বিসিক শিল্প নগরীতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন উদ্বোধন করেন। সেখানে মন্ত্রী বলেন, দেশের প্রতিটি অঞ্চলে ফায়ার সার্ভিস নির্মাণ করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •