জাহেদুল ইসলাম, লোহাগাড়া:
লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি নলবুনিয়া এলাকায় গতকাল ২৬ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) দুপুুরে বাপ্পী বড়–য়া (৩০) নামের এক এনজিও কর্মী ছিনতাইকারীর চুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। সে ব্রাক এনজিও আজিজনগর শাখার মাঠকর্মী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গুরুতর আহত এনজিও কর্মী বাপ্পী বড়–য়া ওই এলাকার ইসমাঈলের স্ত্রী দিলোযারার সভানেত্রীর বাড়ি থেকে ফেরার পথে এ ঘটনা ঘঠে। এ সময় তার কাছ থেকে নগদ টাকা, ট্যাব, মোবাইলসহ মুল্যবান কাগজ পত্র ছিনিয়ে নিযে যায়। ছিনতাইকারীরদের চুরিকাঘাতে তার পিঠে সহ সমসাত শরীরে ৫/৬টি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

স্থানীয়রা তাকে আহতবস্থায় উদ্ধার উপজেলার একটি বেসরকারী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। চিকিৎসার অবনতী হলে তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে বাপ্পী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানান ব্রাক এনজিও লোহাগাড়া শাখার ব্যবস্থাপক অলক কুমার সরকার।

ব্রাক এনজিও আজিজনগর শাখর ব্যবস্থাপক মো: নুরুন্নবী বলেন, আজিজনগর শাখার মাঠকর্মী বাপ্পীকে চুনতি নলবুনিয়া এলাকায় টাকা সংগ্রহ করে ফেরার পথে ছিনতাইকারীরা চুরিকাঘাত করে নগদ ৬০ হাজার টাকা, একটি ট্যাব, মোবাইলসহ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তার প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়েছে। সে বর্তমানে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

খবর পেয়ে লোহাগাড়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই সোহরাওয়ার্দী আহত এনজিও কর্মীকে হাসপাতালে দেখতে যান। তিনি বলেন, এক এজিও কর্মী চুরিকাঘাত হয়েছে বলে শুনে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছি।

এ ব্যাপারে লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শাহজাহান বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে কেউ এখনো কোন প্রকার অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •