ঈদগাঁওতে করাত কল ও অবৈধ স্থাপনা সীলগালা

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ,কক্সবাজার সদর:

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও বাজারে অবৈধ করাতকল ও স্থাপনায় অভিযান চালিয়ে সীলগালা করে  দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। ২৬ ডিসেম্বর দুপুর ১২ থেকে বিকাল ৩ পর্যন্ত সদরের সহকারী ম্যাজিস্ট্রেট ও এসিল্যান্ড মোঃ নাজিম উদ্দীনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ,বিজিবি,আনসার,তহসিলদার অফিসের কর্মকর্তাদের নিয়ে এ অভিযান পরিচালিত হয়।এ সময় বাজারের পান বাজার এলাকায় সরকারী খাস ভুমি দখল করে টিন দিয়ে ঘেরা করা রাখা সীমানা উচ্ছেদ ও স্থাপিত দোকান ঘরে সীলগালা দেওয়া হয়। পরে বাঁশঘাটা ও বংকিম বাজার এলাকায় অবস্থিত দীর্ঘদিন ধরে লাইসেন্স বিহীন করাত কলে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত।এ সময় জামাল,কামাল,হুমায়ন,কায়েস,বশির আহম্মদ,  মুসলিম, আহম্মদ ছৈয়দ,আশু আলী মাঝি,নজরুল, আবুল হোসেনের মালিকাধীন করাত কলে সীলগালা করে দেওয়া হয়।এসিল্যান্ড নাজিম উদ্দীন জানান,বাজার  ফেরি ফেরি করার উদ্দ্যেগ নিয়েছি।কাজ প্রায় ৮০% হয়েছে।অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব এর নির্দেশে অভিযান চালানো হয়েছে।এ এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।এ সময় আদালতের সাথে ছিলেন ঈদগাঁও ভুমি অফিসের তহসীলদার আনোয়ারুল আজিম,সহকারী তহসীলদার খালেদা বেগম সহ অপরাপর কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

সর্বশেষ সংবাদ

২০২২ সালের মধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বোর্ড গঠন

এমপিদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ

রাখাইনের মংডুতে তিন আদিবাসীর মৃতদেহ উদ্ধার

রোহিঙ্গাদের চাপে পানের দাম চড়া

পুলওয়ামায় ফের জঙ্গি হামলায় ৪ সেনা নিহত

প্রধানমন্ত্রীর কাছে মহেশখালীর ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের ৮ দাবি

বাংলাদেশ-আমিরাত চারটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

কক্সবাজার সদরে এসিল্যান্ড শূন্যতায় ভোগান্তি

পুনর্বাসন চায় মহেশখালীর মানুষ

‘নিয়ম ছিল না বলেই বদি আমন্ত্রণ পাননি’

দায়িত্বশীল ছাড়া কারও ডাকে সাড়া নয়

দেশের কোন গোয়েন্দা সংস্থার কী কাজ

কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর আবারও হামলা, সেনা কর্মকর্তাসহ নিহত ৬

ই-ফাইলিং এ কক্সবাজার জেলা প্রশাসন সারাদেশে দ্বিতীয়

নাফে মাছ ধরার অনুমতি ও ইয়াবা বন্ধে সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া দিন : এমপি শাহীন আক্তার

সিবিএন এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সৌদি প্রবাসী বিএনপি নেতা ফরিদের শুভেচ্ছা

এমপি বদি’র সাথে ইউএই টেকনাফ সমিতি’র সৌজন্য সাক্ষাৎ

চাকরিচ্যুতির ভয় দেখিয়ে উপজাতি এনজিও কর্মীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ 

বন্ধ হলো অনলাইনে জুয়া খেলার ১৭৬ সাইট

শাজাহান খানকে সংসদে বেশি কথা বলতে দেয়ায় প্রতিবাদ