পেকুয়ায় রাতে গোলাগুলি, জনমনে আতংক

নাজিম উদ্দিন ,পেকুয়া :

পেকুয়ায় রাতে গুলাগুলি হয়েছে। গত ২১ ডিসেম্বর রাত ১১ টা থেকে ১ টা পর্যন্ত প্রায় দু’ঘন্টা থেমে থেমে গুলি বর্ষন হয়েছে। তবে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। মুর্হুমুহুু গোলাগুলির বিকট শব্দে এলাকায় আতংক দেখা দেয়। যে কোন মুহুর্তে নাশকতা কিংবা সংঘর্ষ হওয়ার সম্ভাবনা দেখতে পেয়ে লোকজন ছুটাছুটি করে দ্রুত নিরাপদ স্থানে চলে যায়। সর্বত্রে আতংক ও উদ্বেগ বিরাজ করলে মানুষজন দ্রুত পালিয়ে যায়। উপজেলার সদর ইউনিয়নের চৌমুহনী ও তার নিকটতম চতুরপাশের্^ গুলিবর্ষনের এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, অন্তত ৩০-৪০ রাউন্ড গুলি ছুড়ে। পেকুয়া থানার পুলিশ গুলাগুলির বিষয়টি আঁচ করছিলেন। এ সময় পুলিশ সদস্যরা দ্রুত প্রস্তুতি নেন। তারা বেরিয়ে পড়েন টহল ও নিরাপত্তা জোরদার করতে। যে কোন পরিস্থিতি ও নাশকতা এড়াতে পুলিশ চৌমুহনীসহ আরো কিছু স্থানে নিরাপত্তাবলয় তৈরী করে। তবে কি কারনে গুলিবর্ষন হয়েছে সেটি নিশ্চিত হওয়া যায় নি। পেকুয়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ জহিরুল ইসলাম খান উত্তেজনা ও আতংক ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তবে তিনি গুলি বর্ষনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। ওসি জানায়, বিজয় মেলার আয়োজন পন্ড করতে রাতে আতশবাজি ফুটানো হয়েছে। স্থানীয়রা জানায়,পেকুয়ায় মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা চলছিল জিয়াউর রহমান কলেজ মাঠে। আয়োজক কমিটি ওই দিন রাতে সাংস্কৃতিক মঞ্চায়ন করে। তারা দর্শকদের মন মাতাতে কন্ঠশিল্পী ও নৃত্যশিল্পীদের মঞ্চে গান, নৃত্য পরিবেশন করছিলেন। দর্শকরা টিকেট নিয়ে মঞ্চে প্রবেশ করে। স্থানীয়রা জানায়, পেকুয়ায় ওই দিন রাতে বিভিন্ন স্থানে ওয়াজ মাহফিল ও সিরাতুন্নবী (সা:) মাহফিল চলছিল। মেলার নিকটে হরিণাফাড়িতে ইসলামিক সম্মেলন হচ্ছিল। এ সময় বয়ান চলছিল। তবে রাতে মেলার চারদিক থেকে গুলি বর্ষন হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি পক্ষ দাবী করে বিজয় মেলায় কিছু অশ্লীল সংস্কৃতি উপস্থাপন হচ্ছে। এ নিয়ে মানুষের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়া তৈরী হয়েছে। তবে গুলিবর্ষনের বিষয়টি অস্পষ্ট থেকে গেছে। ক্লু উৎঘাটন হয়নি। রহস্য থেকে গেছে কেন গুলি বর্ষন হয়েছে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

হোয়াইক্যং হাইওয়ে পুলিশের অভিযানে ৫হাজার ইয়াবা সহ আটক-২

এলাকার উন্নয়নই আমার স্বপ্ন -কাউন্সিলর সাহাব উদ্দিন সিকদার

শহীদ জাফর মাল্টিডিসিপ্লিনারী একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের ন্যায় বিচার কোথায়?

আইনগত ভিত্তি পেলেই ইভিএম ব্যবহার : সিইসি

খাগড়াছড়িতে ব্রিজ ভেঙে ট্রাক নদীতে, নিখোঁজ ১

সাগরে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে ফিশিং ট্রলার ডুবি

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তগণমাধ্যমের জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে’

ফাইভ-জি মোবাইল নেটওয়ার্কে বিকিরণের ঝুঁকি বেশি?

রাখাইনে এখনো থামেনি সেনা ও মগের বর্বরতা

জাতীয় ঐক্য নিয়ে অস্বস্তিতে আ’লীগ

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসঙ্ঘ সফরে প্রাধান্য পাচ্ছে রোহিঙ্গা ইস্যু

সাকা চৌধুরীর কবরের ‘শহীদ’ লেখা নামফলক অপসারণ করলো ছাত্রলীগ

তিন মাসের জন্য প্রত্যাহার আনোয়ার চৌধুরী

মনোনয়ন দৌড়ে শতাধিক ব্যবসায়ী

ফখরুল-মোশাররফ-মওদুদ যাচ্ছেন ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে

এবার ভারতের কাছেও শোচনীয় হার বাংলাদেশের

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় ২০০ কোটি টাকা অনুদান বিশ্বব্যাংকের

বিরোধীরা সব জায়গায় সমাবেশ করতে পারবে

চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা