সৌদিআরব পালাচ্ছে ধর্ষণ মামলার আসামী ঈদগাঁও’র ইউনুছ!

বিশেষ প্রতিবেদক:
কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁওয়েয়র আলোচিত ধর্ষণ মামলার আসামী ও ইয়াবা ব্যবসায়ী মো. ইউনুছ গোপনে সৌদিআরব পালানোর পথে রয়েছে। আজকালের মধ্যে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর হয়ে সে সৌদিআরব পালাচ্ছে বলে বিশ্বস্ত সূত্র নিশ্চিত করেছে। এতে করে আসামী ইউনুছের ধর্ষণের শিকার হয়ে গর্ভবতী হওয়া হাছিনা বেগম চরম অনিশ্চয়তায় রয়েছেন। তাই আসামী ইউনুছের সৌদিআরব পালিয়ে যাওয়া ঠেকাতে পুলিশ প্রশাসনের কাছে আকুতি জানিয়েছেন ধর্ষিতা গর্ভবতী হাসিনা বেগম।

ঘটনা সূত্র জানা গেছে, ঈদগাঁওয়ের দক্ষিণ মাইজপাড়া এলাকার মো. হোছনের মেে য় হাসিনা বেগমকে (১৮) বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দু’দফা ধর্ষণ করেন একই এলাকার আক্তার হোছনের পুত্র মো. ইউনুছ। ধর্ষণের কারণে এক পর্যায়ে গর্ভবতী হয়ে পড়েন হাসিনা বেগম। কিন্তু পরবর্তীতে হাসিনাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় ধর্ষক ইউনুছ। এই নিয়ে কয়েক দফা স্থানীয়ভাবে বিচার-সালিশও হয়েছে। তাতেও কাজ না হওয়ায় গত ৮ আগস্ট কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়। যার সিপি নং-৯৭০। ভুক্তভোগী হাসিনার বড়বোন জাহেদা বেগম বাদি হয়ে মামলাটি করেন। আদালত পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআইকে মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দেন।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ, পিবিআই কক্সবাজার’র উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফ উল্লাহ তদন্তের দায়িত্ব পান। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ তদন্ত সম্পন্ন করেন। কিন্তু দীর্ঘ দু’মাস পেরিয়ে গেলেও এখনো তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়নি। আসামী পক্ষ মোটা অংকের টাকা নিয়েই তিনি তদন্ত প্রতিবেদন দেয়নি। এই তদন্ত কর্মকর্তার সাথে যোগসাজস করে আসামী ইউনুছ এরই মধ্যে সৌদিআরব পালানোর সব কার্যক্রম সম্পন্ন করে। এমনকি আজকালের মধ্যে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর হয়ে পালাচ্ছে বলে ভুক্তভোগী জানতে পেরেছেন। ইতিমধ্যে আজ শুক্রবার বাড়ি থেকে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছে আসামী ইউনুছ।

ভুক্তভোগী হাসিনা আরো অভিযোগ করেন, তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক শরীফ উল্লাহ এক সময় ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিযুক্ত ছিলেন। সে সুবাধে এখনো তার পরিবার সেখানে থাকে। এই সুযোগকে স্থানীয় মেম্বার নূরুল হক আসামী ইউনুছের পক্ষ থেকে তদন্ত কর্মকর্তা শরীফ উল্লাহর সাথে মাটা টাকায় সব ধরণের দফারফা করেন। এই জন্য মেম্বার নূরুল হকও মোটা টাকা খেয়েছেন।

ভুক্তভোগী হাসিনা আরো অভিযোগ করেন, আসামী মো. ইউনুছ একজন ইয়াবা ব্যবসায়ী। সে মুদি দোকানের আড়ালে ইয়াবা ব্যবসা করে বিপুল টাকার মালিক হয়েছে। এই টাকা দিয়েই সবার মুখ বন্ধ করে মামলা থেকে বাঁচতে সে গোপনে সৌদিআরব পালানোর চেষ্টা করছে।

এদিকে ধর্ষণে গর্ভবতী হওয়া হাসিনা বেগম গর্ভের সন্তান নিয়ে চরম দু:চিন্তায় পড়ে গেছেন। তার ও অনাগত সন্তানের ভবিষ্যৎ চরম অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে। এই নিয়ে হাসিনা বেগম চরম কষ্টে আছেন। তাই তিনি আসামীকে ধর্ষক ইউনুছের সৌদিআরব পালানোর ঠেকাতে পুলিশের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে যোগাযোগ করা হলে মুঠোফোন বন্ধ থাকায় কক্সবাজার পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামানের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সর্বশেষ সংবাদ

আজ আন্তর্জা‌তিক মাতৃভাষা দিবস

মুজিবুর রহমান ও এমপি জাফরের দোয়া নিলেন ফজলুল করিম সাঈদী

মাতৃভাষার প্রতি আগ্রহ হারাচ্ছে রাখাইনদের নতুন প্রজন্ম

শুদ্ধ সংস্কৃতির চর্চার মধ্য দিয়ে অপশক্তিকে রুখতে হবে- মেয়র মুজিব

একুশে ফেব্রুয়ারি : প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা

টেকনাফে সাড়ে ১৫ লক্ষ টাকার স্বর্ণালংকার উদ্ধার

চকরিয়ায় শিশু ও নারী নির্যাতন মামলার ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার

২০ হাজার ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এডভোকেট রানা দাশগুপ্তের সাথে কক্সবাজার জেলা নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

ইসলামে মাতৃভাষার গুরুত্ব ও তাৎপর্য

ঈদগাঁওতে পুজা কমিটির সম্মেলন নিয়ে সংঘাতের আশংকা

কক্সবাজার সিটি কলেজে শিক্ষকদের জন্য আইসিটি প্রশিক্ষণ শুরু

উখিয়ায় হাতির আক্রমণে রোহিঙ্গা যুবকের মৃত্যু

এস আলম গ্রুপের ৩ হাজার ১৭০ কোটি টাকার কর মওকুফ

মালয়েশিয়ায় ভবনে আগুন : বাংলাদেশিসহ নিহত ৬

মহেশখালীতে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে মোস্তফা আনোয়ার

চকরিয়ায় ইয়াবাসহ দুই ব্যবসায়ী আটক

চকরিয়ার চেয়ারম্যান পদে ২ জনসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

কোর্টরুমে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে হবে : প্রধান বিচারপতি

পেকুয়ায় স্থাপনা নির্মাণ বন্ধ ও গাছ জব্দ