শাহেদ মিজান, সিবিএন:
সেন্টমার্টিন যাওয়ার পথে ‘অসাবধানতাবশত:’ অরিত্র মোহাম্মদ নামে এক পর্যটক জাহাজ থেকে সাগরে পড়ে যায়। তবে ট্যুরিস্ট পুলিশ ও জাহাজের স্টাফরা তাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নাফ নদীর শাহপরীর দ্বীপ সংলগ্ন স্থানে এই ঘটনা ঘটে। সাগরে দুর্ঘটনার শিকার যাত্রী অরিত্র মোহাম্মদ পঞ্চগড় জেলার বোদা ধৌদ্ধা এলাকার গিয়াস উদ্দীনের পুত্র। ট্যুরিস্ট পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রায়হান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রায়হান কাজেমী জানান, টেকনাফ দমদমিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া এলসিটি কুতুবদিয়া জাহাজে করে সেন্টমার্টিন যাচ্ছিল পর্যটক অরিত্র মোহাম্মদ। এক পর্যায়ে তিনি জাহাজের সাইট রেলিংয়ে বসে। ট্যুরিস্ট পুলিশ ও জাহাজ স্টাফরা নিষেধে সরে গিয়ে ফের সেখানে গিয়ে বসেন তিনি। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সাগরে পড়ে যান ওই পর্যটক। তবে তিনি সাগরে পড়ার সাথে সাথে তাকে উদ্ধারে সাগরে ঝাঁপ দেন ট্যুরিস্ট পুলিশের এএসআই/৫৯ মোঃ জুমায়েত হোসেন। জাহাজের স্টাফদের সহযোগিতায় অল্পক্ষণের মধ্যে তিনি যাত্রী অরিত্র মোহাম্মদকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন।


এদিকে অভিযোগ উঠেছে, অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করেছিল সেন্টমার্টিনগামী ওই এলসিটি কুতুবদিয়া জাহাজ। এই অভিযোগে ওই জাহাজ কর্তৃপক্ষকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারাজানা প্রিয়ংকার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত কলাতলীতে অবস্থিত এলসিটি কুতুবদিয়া জাহাজ কার্যালয়ে গিয়ে এই জরিমানা করেন।

অন্যদিকে এ ব্যাপারে দুর্ঘটনার শিকার পর্যটক অরিত্র মোহাম্মদ স্বীকারোক্তি দিয়েছেন ট্যুরিস্ট পুলিশ ও জাহাজ স্টাফদের নিষেধ সত্ত্বেও তিনি ঝুঁকিপূর্ণভাবে জাহাজের রেলিংয়ে পড়েন। এতে তিনি অসাবধনাত বশত: সাগরে পড়ে যান। এটা সম্পূর্ণ নিজের দায় স্বীকার তিনি মূচলেকাও দিয়েছেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •