প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দু’আ মাহ্ফিল করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসমাজ রামু উপজেলা শাখা। বাদে আসর অস্থায়ী কার্যালয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, ইসলামী ছাত্রসমাজের সাবেক কেন্দ্রীয় সংগঠন সচিব ও কক্সবাজার জেলা নেজামে ইসলাম পার্টির সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা আ.হ.ম নুরুল কবির হিলালী। তিনি বলেন, লাখো শহীদের তাজা রক্তের বিনিময়ে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ স্বাধীনতা সংগ্রামে বিজয় লাভ করেছে। ঈমান-আকীদা সংরক্ষণ আন্দোলনের পাশাপাশি দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব অক্ষুন্ন রাখতেও ইসলামী ছাত্রসমাজ নেতা-কর্মীরা অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকা অব্যাহত রাখবেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে ইসলামী ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর বলেছেন, ওলামায়ে কেরামের নেতৃত্বে বৃটিশ বিরোধী আযাদী আন্দোলন আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের মূল উৎস। তাই ওলামা কেরামকে বাদ দিয়ে স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাস কল্পনা করা যায় না। এ দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে অবদান রাখায় আল্লামা আসআদ মাদানী(রহ.) কে বাংলাদেশ সরকার কর্র্তৃক মরণোত্তর সম্মাননা প্রদান সেই গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের বলিষ্ঠ স্বাক্ষর।

সংগঠনের রামু উপজেলা সভাপতি মুহাম্মদ দিদারুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি রাজারকুল ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক মাওলানা জসিম উদ্দিন, রামু উপজেলা ইসলামী ছাত্রসমাজের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ আবদুল করিম, অর্থ-সম্পাদক মুহাম্মদ অলি উল্লাহ, হাফেজ মুহাম্মদ রেজাউল করিমসহ নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভা শেষে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদানের রুহের মাগফিরাতসহ দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করা হয়।

রামু রাজারকুল আজিজুল উলুম মাদ্রাসায় মহান বিজয় দিবস পালন

১৬ ডিসেম্বর ঐতিহাসিক বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে রামু রাজারকুল আজিজুল উলুম মাদ্রাসা ও এতিমখানা। এ উপলক্ষ্যে কর্মসূচীর মধ্যে ছিল জাতীয় পতাকা উত্তোলন, খতমে কুরআন মজীদ, মুক্তিযুদ্ধের শহীদানের রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দু’আ, “স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় করণীয়” শীর্ষক আলোচনা সভা, “আল-আজিজ’র বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ, বিজয় দিবস র‌্যালী।

মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মোহাম্মদ মোহছেন শরীফের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা বিভাগের উদ্যোগে এসব কর্মসূচী পালিত হয়। বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মোহছেন শরীফ বলেছেন, স্বাধীনতা মহান আল্লাহর দেওয়া অপার নিয়ামত। ঈমানী চেতনা ও দেশাত্মবোধে উজ্জীবিত হয়ে ইসলামী তাহযীব-তামাদ্দুন ও দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব অক্ষুন্ন রাখার দৃপ্ত শপথ গ্রহণ করতে হবে।

দু’আ মাহফিলে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদানের রুহের মাগফিরাতসহ দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •