সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

কক্সবাজারে হোটেল শৈবাল রক্ষার দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে নাগরীক সমাজসহ কক্সবাজারের বিভিন্ন সামাজাকি সংগঠন। রোবার দুপুর ১২ টার দিকে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেনকে মাধ্যম করে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। পর্যটন শিল্পের গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ হোটেল শৈবাল। এইটি শুধু কক্সবাজারবাসীর সম্পদ নয় সারা দেশের মানুষের গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ। বহু বিতর্কিত অরিন গ্রুপকে পাবলিক পার্টারশীপ প্রকল্পের মাধ্যমে কোনভাবে লিজ দেয়া যাবে না। ১৩৫ একর জমির যার টাকার অংকে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা। ৫০ বছরের জন্য মাত্র ৬০ কোটি টাকার বিনিময়ে কোনভাবে তোলে দেয়া যাবে না এমন দাবী কক্সবাজারের সচেতন নাগরীকের। ইতোমধ্যে তাদের এমন হঠকারি সিন্ধান্তের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে কক্সবাজাবাসী। এটির সমধান না আসা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

স্বারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, একাত্তরের ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির কক্সবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ, ইঞ্জিনিয়ার কানন, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মুফিজুর রহমান মফিজ, কক্সবাজার সোসাইটির সভাপতি কমেরেড গিয়াস উদ্দিন, শৈবাল রক্ষা আন্দোলনের মুখপাত্র ও পরিকল্পিত কক্সবাজার আন্দোলনের সমন্বয়ক সাংবাদিক আব্দুল আলীম নোবেল, খেলাঘর কক্সবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক যুব নেতা কলিম উল্লাহ কলিম,কক্সবাজার বন ও পরিবেশ সংরক্ষণ পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পরিবেশ সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু, টুয়াকের আহবায়ক এম এ হাসিব বাদল, পর্যটন ব্যবসায়ী নেতা এম এ সায়েম ডালিম, ডাক্তার এম গণি,কক্সবাজার নাগরিক আন্দোলনের যুগ্ন আহবায়ক এইচ এম নজরুল ইসলাম, শিক্ষক নেতা তাহমিদুল মুনতাসির ও সমির পাল প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •