চট্টল বীর: দিয়েছেন অনেক, পেয়েছেন ভালোবাসা

ডেস্ক নিউজ:

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কম কাজ করেননি সদ্য প্রয়াত চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের এই মেয়রের দীর্ঘ কর্মজীবনে চট্টগ্রামে পরিবর্তন এনেছেন অনেকখানি।

চট্টগ্রামে মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করার সময় চট্টগ্রামে পাঁচটি ম্যাটার্নিটি ক্লিনিক তৈরি করেন তিনি। এসব হাসপাতালে নবজাতকের যত্ন ও আধুনিক গাইনোকলিজাল সুবিধা নিশ্চিত করা হয়। দুজন গাইনী পরামর্শক ও একদল ডাক্তারের দ্বারা এসব হাসপাতাল পর্যবেক্ষণ করা হয়।

এ বি এম মহিউদ্দিন চ্যেধুরী দেশের প্রথম মেয়র ছিলেন যার অধীনে কোনো ব্যক্তিগত বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সেটার নাম প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি, যেটা স্পন্সর করে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন।

মহিউদ্দিন চৌধুরী দায়িত্ব নেওয়ার পর কলেজ, কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার, মিডওয়াইফ ট্রেনিং সেন্টার, হেলথকেয়ার টেকনোলজি ট্রেনিং সেন্টার, সাহিত্য নিয়ে পড়াশোনা করানোর মতো ৮টি রাত্রীকালীন কলেজ খোলা হয় চট্টগ্রামে। সিটি কর্পোরেশনে হিন্দু শিক্ষার্থীদের জন্য আটটি হিন্দু ধর্ম শিক্ষা সেন্টারও গড়া হয়।

চট্টগ্রাম বাসীকে তিনি দিয়ে গেছেন অনেককিছু। বিনিময়ে তিনি পেযেছেন চট্টগ্রামবাসীর ভালোবাসা। সেটা টের পাওয়া যায় নির্বাচনের সময়গুলোতে।

তার করা নির্বাচনের সময়েও দেখা গেছে জনগণের শক্তি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তখন বিরোধি দলে থাকা সত্বেও তিনি বিজয়ী হন জনতার ভোটে।

ভোটের পরই সেবার রাস্তায় নেমে আসে সাধারণ জনগণ। সেদিন বাস বা কারের মতো ট্রান্সপোর্ট নিষিদ্ধ করা হলে মানুষ পায়ে হেঁটে শহরে চলে আসে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টায় শহরে কারফিউ জারি করা হয়। জনগণ সারারাত শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান ধর্মঘট করে। পরদিন সকালে জনগণের দাবির কাছে তাকে মেয়র ঘোষণা করতে বাধ্য হয় এবং তার প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা সবার সামনে উন্মুক্ত করা হয়।

নির্বাচন পর্যবেক্ষকরা বলেন, সেদিন জনগণ পথে না নামলে ক্ষমতাসীন দল নির্বাচনের ফল বদলে দিতে পারতো।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

আদর্শ নেতৃত্ব সৃষ্টির জন্য সৎকর্মশীলদের সান্নিধ্য অপরিহার্য

শেষ মুহূর্তে তারুণ্যের শক্তি দেখাতে চান সফল উদ্যোক্তা আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ

রামুতে মাসব্যাপী পণ্য প্রদর্শনী মেলা উদ্বোধন

রামুতে জেএসসিতে এ-প্লাস ও বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

’সুজন’ চকরিয়া উপজেলা কমিটি গঠিত

বদির স্ত্রীকে আ. লীগের প্রার্থী ঘোষণা

প্রেমে বাঁধা দেওয়ায় ছাত্রীর মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে গৃহশিক্ষক

কক্সবাজারে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

জিএম রহিমুল্লাহর মৃতুতে জেলা বিএনপির শোক

জিএম রহিমুল্লাহ’র মৃত্যুতে কক্সবাজার পৌর পরিষদের শোক

বিশ্বের সর্বোচ্চ ১৫০ বছর বয়সের জীবিত মানুষ খুটাখালীর সিকান্দর!

আলোকচিত্রী শহিদুল আলম কারামুক্ত

৩০ নভেম্বর কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হবে ‘ওয়াকাথন ২০১৮’

কক্সবাজারের ৪টি আসনেই লড়বে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

রাঙামাটিতে ৯৪দিন পর অপহৃত চাকমা তরুনী উদ্ধার : আটক-৩

জিএম রহিমুল্লাহর মৃত্যুতে জামায়াতের শোক

বিএনপি জামায়াতের ১০ নেতার আগাম জামিন লাভ

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদকের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল

রাঙামাটির সাংবাদিক নাজিমের মায়ের ইন্তেকাল, সাংবাদিকদের শোক

রাঙামাটিতে অস্ত্রসহ চাকমা যুবক আটক