চকরিয়ায় শিক্ষার মান উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া: 
চকরিয়ায় মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার মান উন্নয়ন,  শীতকালিন মৌসুমী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম শতভাগ নিশ্চিত করার জন্য উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক-সুপার ও অধ্যক্ষ সাথে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় শিক্ষার মান নিয়ে উপস্থিত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের উদ্যশ্যে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আমরা পিছিয়ে থাকতে পারি না। আমাদেরও এগিয়ে যেতে হবে।বর্তমান সরকার দেশকে নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করতে এবং শতভাগ শিক্ষার্থী বিদ্যালয়গামী করতে শিক্ষকদের পড়া-লেখার পাশাপাশি  মান উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে।শিক্ষার মান উন্নয়নে অগ্রাধিকার দেওয়ার পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার উপযোগী পরিবেশ তৈরি করতে হবে।এ বিষয়টিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।শিক্ষার্থীদের জ্ঞানস্পৃহা জাগ্রত করে তুললে তারা জ্ঞান অর্জন করতে পারবে।এ ক্ষেত্রে শিক্ষকদের ভূমিকা সবচেয়ে বড় এবং অপরিহার্য। দুঃখজনক হলেও সত্য, বর্তমানে দেশে শিক্ষার্থীদের জ্ঞান চর্চার যথেষ্ট অভাব রয়েছে।ফলে আমাদের শিক্ষার্থীদের অনেকেই বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় ভালো করতে না পেরে মানসিক যন্ত্রণা ও দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে।শিক্ষার্থীদের জ্ঞান অর্জনে উৎসাহিত করা,আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে পাঠদান করা এবং সঠিক নির্দেশনা দিয়ে তাদের জীবন গড়তে সাহায্য করা।কিন্তু তা না হয়ে যদি মূল লক্ষ্য হয় বাণিজ্যিক,তা হলে সেটি শুধু শিক্ষার্থীদের জন্য নয়,সমগ্র জাতির জন্যও ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়ায়।তিনি আরো বলেন,শিক্ষার মান উন্নয়নে সরকারের ভূমিকা থাকবে ইতিবাচক।প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করবে সরকার।মানহীন শিক্ষার এদেশে কোন গুরুত্ব নেই।বিশ্বায়নের সাথে দেশ তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।একটি আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে মানহীন নয়, মানসম্মত শিক্ষা গ্রহণ করা আবশ্যক।বাংলাদেশে শিক্ষায় আইসিটি’র ব্যবহার উল্লেখ যোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।সারা দেশে দ্রুত গতিতে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম ছড়িয়ে পড়ছে।কোন দেশের ভবিষ্যৎ নির্ভর করে সে দেশের ক্লাসরুমগুলোতে কী হচ্ছে তার উপর। সুতরাং আমাদের মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমগুলোর সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা মাধ্যমে মানসম্মত শিক্ষা অর্জনে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে।সরকার ডিজিটালের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে ২০২১ এবং ২০৪১ উন্নত সমৃদ্ধ দেশ গড়তে যে পরিকল্পনা নিয়ে সামনে অগ্রসর হচ্ছে তা বাস্তবে প্রতিফলন ঘটাতে শিক্ষার মান উন্নয়ন ছাড়া কোন বিকল্প নাই।শু ধু তাই নয় এরই পাশাপাশি প্রতিটি শিক্ষার্থীকে লেখা-পড়ার সাথে সাথে বিভিন্ন খেলাধুলায় অংশ গ্রহণ করে একজন আদর্শবান খেলোয়াড় হিসেবে তৈরি করাও একটি নৈতিক দায়িত্ব। প্রতিটি শিক্ষার্থীকে সুশিক্ষা নিশ্চিত করতে পারলেই এ দেশ আর কখনও পিছিয়ে থাকবেনা বলে তিনি জানান।১২ডিসেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ হলরুম”মোহনায়” উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের সভাপতিত্বে উক্ত শিক্ষার মান উন্নয়নের সভা অনুষ্ঠিত হয়।এ সময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক সুপার ভাইজার রতন বিশ্বাস।প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্টানে শিক্ষাকে আরো মানসম্মত ও যুগোপযোগী কি ভাবে করা যায় সে বিষয়ে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন সভায় অংশ নেয়া স্কুল ও মাদ্রাসার প্রধানগণ।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কেন শেখ হাসিনাকেই আবার ক্ষমতায় দেখতে চায় ভারত

দাঁতের ইনফেকশন থেকে হতে পারে হার্ট অ্যাটাক

দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিযুক্ত হলেন আনছার হোসেন

তারেকের বিষয়ে ইসির কিছুই করার নেই

গণফোরামে যোগ দিলেন সাবেক ১০ সেনা কর্মকর্তা

৬০ আসনে জামায়াতের ‘দর-কষাকষি’

চকরিয়ায় মধ্যরাতে স্কুল মাঠে ঘর তৈরির চেষ্টা

চকরিয়া-পেকুয়ায় মনোনয়ন পেতে মরিয়া জাফর আলম

তারেকের ভিডিও কনফারেন্স ঠেকাতে স্কাইপি বন্ধ করল বিটিআরসি

খুটাখালী বালিকা মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগ

চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষনা

ইসির নির্দেশনা বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা জানেন না জেলা নির্বাচন অফিসার

প্রশাসন ও পুলিশে রদবদল করতে যাচ্ছে ইসি

আ’লীগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়নি: ওবায়দুল কাদের

মাদকের কারণে কক্সবাজারের বদনাম বেশি -অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম

বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে কক্সবাজারকে এগিয়ে নিতে চান আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ

আগাম নির্বাচনি প্রচার সামগ্রী না সরানোয় জরিমানার নির্দেশ ইসি’র

টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিশ্ব টয়লেট দিবস পালিত

রাঙামাটিতে যৌথ অভিযানে তিন বোট কাঠসহ আটক ৭

বিএনপি’র প্রতীক ‘ধানের ছড়া’ না ‘শীষ’?