সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

রামু উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও জেলা বিএনপির সদস্য এস.এম ফেরদৌস চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন রামু উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ  সম্পাদক ফোরকান আহমদ, যুগ্ম-সম্পাদক টিপু সোলতান, আবুল বশর বাবু প্রমুখ।

শোক বানীতে তারা বলেন, এস.এম ফেরদৌস যেমন প্রাজ্ঞ রাজনীতিবিদ তেমন নিঃস্বার্থ সমাজসেবকও। জাতীয়তাবাদী দলের রাজনীতির জন্য তিনি একজন বটবৃক্ষ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রয়াত এই নেতার হাত ধরে উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন অনেক শক্তিশালী হয়েছে। এস.এম ফেরদৌসের শুন্যতা পূরণ হওয়ার মতো নয়।

উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ মরহুমের বিদেহী আত্নার মাগফিরাত কামনা ও শোকাহত স্বজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

গত রবিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ৭টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। বিকাল ৫টায় খুনিয়াপালংস্থ নিজ এলাকায় মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর আগে শনিবার বিকেল ৫টায় কক্সবাজার শহরের সী-কুইন মার্কেটের সামনে মোটর সাইকেল-টমটমের মুখোমুখি সংঘর্ষে গুরুতর আহত হন বিএনপি নেতা এস. এম ফেরদৌস। দুর্ঘটনার পরপরই তাঁকে সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে অ্যাম্বুলেন্সে করে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্রগ্রাম পাঠানো হয়। সেখানে জীবনাবসান ঘটে তার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •