যে ব্যাচের বিদায়ে কাঁদলো কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বরাবরের মতই ব্যাতিক্রম কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বিবিএ ১ম ব্যাচ। চার বছর শেষের বিদায়ী আয়োজনের নাম দিয়েছে তারা “বিদায় অনুষ্ঠান”। শুধু নামে না, কাজেও বিবিএ ১ম তম ব্যাচ ছিলো পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ের সবধরণের সহশিক্ষা কার্যক্রম ও পড়াশোনায় ছিলো এগিয়ে।
দিনের শুরুতে ক্যাম্পাস জুড়ে ১২০জন শিক্ষার্থীর একটি বড় র‌্যালী ক্যাস্পাস প্রদক্ষিণ করে অডিটোরিয়ামে এসে শেষ হয়। তখন পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ব্যাচের জুনিয়রেরা র‌্যালীতে যোগ দেয় এবং ১ম ব্যাচের বিদায়ে যুক্ত হয়।
এরপর জাতীয় সংগীত এর মাধ্যমে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান। এরপর বিবিএ বিভাগের শিক্ষক কাজী নূরে জান্নাতের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় একে একে মঞ্চ আলোকিত করেন এবং শুভেচ্ছা জানান, বিশ^বিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এএসএম সাইফুর রহমান, বিভাগীয় প্রধান রাজিদুল হক, বিভাগের শিক্ষক কাজি নূরে জান্নাত, আদিতি বড়–য়া, তৌসিফ আহমেদ সহ বিভাগের প্রায় সকল শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদেও মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন বিবিএ ১ম ব্যাচের উম্মে কুলসুম সম্পা, চেনাইন রাখাইন, সুমন বড়–য়া, নিশাত, মো. রাসেল, ৭তম ব্যাচের তসলিমা, ৫ম ব্যাচের রাসেল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশ^বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার নাজিম উদ্দিন সিদ্দিকী। তিনি তার বক্তব্যে বলেন,” আমার ক্যাম্পাসের সবচেয়ে ক্লিন ব্যাচ বিবিএ ১ম ব্যাচ, তোমরা প্রত্যেকে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্র্যান্ড এম্বাসেডর। তোমরা জীবনে চলার পথে নিজেদের প্রতি খেয়াল রাখবা এবং বিশ^বিদ্যালয়ের সুনামক্ষুন্ন হয় এমন কিছু করবা না।
পুরো আয়োজনে ক্যাম্পাসজুড়ে ছিলো ভিড়, অডিটোরিয়ামে ছিলোনা তিল ধারণের জায়গা। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ বিভাগের প্রধান রাজিদুল হক তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ”নক্ষত্রদের হারাচ্ছে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি”।
বিশ^বিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এএসএম সাইফুর রহমান বলেন,বারবার বলা হচ্ছিলো বিবিএ ১ম ব্যাচের মাধ্যমে অনেক শুভ কিছুর শুরু দেখেছে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। তাদের মাধ্যমেই গঠিত হয় সিবিআইইউ বিজনেজ ক্লাব। বিবিএ’র সবচেয়ে ভাল ফলাফর করা ব্যাচ বিবিএ ১ম ব্যাচ। এদের হাত ধরে নেমেছে বিশ^বিদ্যালয়ের দুর্দান্ত কিছু আয়োজন। এরাই প্রথম ব্যাচ যারা সাতটি সেকশন একসাথে পিকনিক, বর্ষপূর্তি, মিলাদ সবকিছু পালন করে, এদের পরিবেশনায় মুখরিত থাকে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মূল আয়োজন “পহেলা বৈশাখ”। আরো রয়েছে সফলতার নানা গল্প, সেগুলো থাকে পর্দার অন্তরালে।
আলোচনা শেষে বিবিএ বিভাগের পক্ষ থেকে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের ক্রেষ্ট দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়।
সন্ধ্যা নামতে রং উৎসবে আর সাদা টিশার্টে শুভ বার্তা লেখায় ব্যাস্ত হয়ে পড়ে বিদায়ী ১ম ব্যাচ, দিনে করা আনন্দ নেমে আসে কান্নায় এক হয়ে। একজন আরেকজনকে জড়িয়ে ধরে যে কান্নায় ভেঙে পড়েন তারা, মনে হচ্ছিলো এখানেই জন্ম নিচ্ছে নতুন এক ইতিহাস।
ভালো থাকুক বিজনেস এডমিনিষ্ট্রেশন বিভাগ’র ১ম ব্যাচ।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবার শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে হবে- ড. আনচারুল করিম

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-১০

১ অক্টোবর থেকে সারাদেশে সভা-সমাবেশ করার ঘোষণা

মেগা পাঁচ প্রকল্পে আরও বিনিয়োগে আগ্রহী জাপান

‘ব্যক্তিগতভাবে আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছুই নেই’

হোয়ানকে রাতের আঁধারে গাছ লুট করলো প্রবাসী

তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে এস.আইটি‘র (SiT) ফুলেল শুভেচ্ছা

রাঙামাটিতে ইয়াং বাংলা এক্টিভেশন কার্যক্রম

নাইক্ষ্যংছড়িতে জবাই করা গর্ভবতী মহিষের মাংস ও মৃত বাচ্চা জব্দ, তোলপাড়

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন : কোন অপরাধে কি শাস্তি !

বিগ বসের টোপ দিয়ে নারীদের বিছানায় ডাকেন তিনি

‘এই লীগ লুটেরা লীগ’

খালেদার মুক্তি চাইলেন মান্না

কক্সবাজার শহরে ২০ স্পটে যানজট বিরোধী অভিযান

ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে হামলা, নিহত ৪

জনগণ সুশাসন দেখতে চায় : কামাল হোসেন

‘দুর্নীতি করব না, মিথ্যা কথা বলব না, অসৎ কাজ করব না’

বান্দরবানে কোটি টাকার ব্যয়ে তিনটি উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন

চকরিয়া আ.লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাচনী বহরের জনসভায় লাখো মানুষের উপস্থিতির প্রস্তুতি

তথ্য প্রযুক্তি ও কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে- রামুতে মন্ত্রীপরিষদ সচিব