প্রেস বিজ্ঞপ্তি
৮০ দশকে স্বৈরাচার সামরিক জান্তা বিরোধী ঐতিহাসিক গণ-আন্দোলনের সাহসী ও কারা নির্যাতিত ছাত্রনেতা, বর্তমানে জাসদ নেতা আবুল কালাম আর আমাদের মাঝে নেই।
মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টায় কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলা ৫৫ বছর। তার স্ত্রী, এক কন্যা, এক পুত্র ছিল।
বুধবার বেলা দুইটায় হাশেমিয়া আলিয়া মাদরাসা মাঠে তাঁর নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।
জানাযার পূর্বে সমবেত মুসল্লীদের উদ্দেশ্যে কথা বলেন জেলা জাসদের সভাপতি নইমুল হক চৌধুরী টুটুল, মরহুম আবুল কালামের সতীর্থ ও ভাই সাংবাদিক মুহাম্মদ আলী জিন্নাত, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জি,এম,রহিম উল্লাহ, অ্যাডভোকেট আবদুল কাইয়ুম ও মোহাম্মদ রফিক উদ্দিন।
জানাযা শেষে সাহিত্যিকা প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন চৌধুরী পাড়া কবরস্থানে তাঁকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। উল্লেখ্য, আবুল কালামের জন্ম, শিশু, কৈশোর, তরুণ ও যৌবনকাল কেটেছে কক্সবাজার পৌরসভার বাহারছড়ায়। তার বাবা জহির আহমদ কক্সবাজার পৌরসভার কমিশনার ছিলেন।
আবুল কালাম ছিলেন পিতা-মাতার একমাত্র সন্তান। তিনি সংসার জীবনে প্রবেশ করার পূর্ব রুমালিয়ারছড়ায় স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •