নুরুল কবির বান্দরবান :

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের সাপমারাঝিরি শূণ্য রেখায় আশ্রিত রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৭টি টিউবওয়েল উধাও হয়ে গেছে। গত দুই দিনে এসব টিউবওয়েল দুষ্কৃতিকারীরা চুরি করে নিয়ে যেতে পারে বলে ধারনা করছেন ক্যাম্প পাহারায় নিয়োজিত সদস্যরা। এ ঘটনার পর স্থানীয় গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মাঝে তোলপাড় শুরু হয়েছে।এদিকে কক্সবাজারের কুতুপালং শরনার্থী ক্যাম্পে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের দেয়া ৫০০০ টয়লেট ও ৩০০০ নলকূপের মান নিয়ে অভিযোগ করেছে রোহিঙ্গা শরনার্থীরা। রোহিঙ্গা আব্দুল আলীম ছকিনা বেগম, ফাতেমা আকতার বলেন টয়লেটে রিং কম দেয়ায় অল্পতেই টয়লেট পরিপূর্ণ হয়ে যাচ্ছে এতে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে ক্যাম্প এলাকায়,এবং নলকূপের গভীরতা কম হওয়ায় পানি পাওয়া যাচ্ছে না।

জানা গেছে, রোহিঙ্গাদের সুপেয় পানি সমস্যার সমাধানে সমাজের বিত্তশালীদের পক্ষ থেকে সাপমারাঝিরি পাহাড়ের কিনারায় এসব টিউবওয়েল স্থাপন করা হয়েছিল মাসখানেক পূর্বে। মঙ্গলবার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সাপমারাঝিরির ওই ক্যাম্প থেকে আনুমানিক ৫শ রোহিঙ্গাকে সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছিল উপজেলা প্রশাসন। কিন্তু দুই প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়হীনতার কারণে নির্ধারিত দিনক্ষণ বাতিল হয়। প্রশাসনের ব্যস্থতার এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দুষ্কৃতিকারীরা টিউবওয়েলগুলো চুরি করে নিয়ে যায়।

সদর ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট এলাকার ওয়ার্ড মেম্বার হাসান আলী জানান- সাপ মারাঝিরি থেকে রোহিঙ্গাদের সরিয়ে নেয়ার খবর পেয়ে দুষ্কৃতিকারীরা এ ধরনের কাজ করেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এস,এম সরওয়ার কামাল বলেন- টিউবওয়েল চুরির বিষয়টি কেউ আমাকে জানায়নি। ঘটনা সত্য হয়ে থাকলে তা খুবই দু:খজনক।

বান্দরবান জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী সোহারাব হোসেন বলেন,আসলে মিয়ানমার সীমান্তের সাপমারাঝিরি শূণ্য রেখায় আশ্রিত রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৭টি টিউবওয়েল উধাও হয়েছে আমি এখনো শোনেনি তবে যারা এ কাজ করেছে তা ভালো করেনি এটি খুবই দু:খজনক। ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •