আবদুল মালেক সিকদার, রামু:

রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নে ধান ক্ষেতে আগাছানাশক বিষ প্রয়োগ করায় সর্বশান্ত হয়েছে এক কৃষক। এতে তার ৮০শতক জমির ধান গাছ পুড়ে গেছে। ইউনিয়নের বি.কে.এস.পির মাঠ সংলগ্ন লাভার বিল এলাকায় ৩০শে নভেম্বরের আগের রাতে যেকোন এক সময় এঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের পূর্ব নোনাছড়ি মুরা পাড়া এলাকার মৃত আলী আহমদের পুত্র হাবিবুর রহমান কৃষক গিয়াস উদ্দীন থেকে জমি নিয়ে বর্গাচাষা হিসেবে হরিধানের চাষাবাদ করেন। বর্তমানে ধান পাকনা হয়েছে। উক্ত জমিতে পূর্ব শত্রুুতার জের ধরে পূর্ব নোনাছড়ি মুরা পাড়া এলাকার মৃত গোলাম বারীর পুত্র মোঃ হোছন প্রকাশ মাছন আগাছানাশক বিষ প্রয়োগ করে। ফলে ৮০শতক জমির ধান গাছ পুড়ে যায়। কৃষক হাবিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল এই জমির ধান বিক্রয় করে সেই টাকা থেকে ধার-দেনা শোধ করার পর সংসারের ভরণপোষন চালাবে, কিন্তু দুবৃত্তদের বিষ দেওয়ার ফলে তার স্বপ্ন আর পূরণ হলো না।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানান, সন্ত্রাসী মোহাম্মদ হোছন প্রকাশ মাছন এধরণের অন্যায় কাজ আরও অনেক করেছে। তাকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান। কৃষক হাবিবুর রহমান আরো জানান, ধান ক্ষেতে বিষ প্রয়োগের খবর পেয়ে গত ৩০শে নভেম্বর সকাল ১০টায় আমি আমার ধান ক্ষেতে গিয়ে দেখি ধান ক্ষেত পুড়ে গেছে। এতে আমার ৫০হাজার টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে। খবর নিয়ে দেখি মোহাম্মদ হোছেন মাছন আমার ধানক্ষেতে ক্ষতিসাধন বিষ প্রয়োগ করেছে।

কৃষক হাবিবুর রহমান আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, আমি এখন আমার ছেলে-মেয়ে নিয়ে কি করব? আমার সব শেষ! পূর্ব নোনাছড়ি মুরা পাড়া এলাকার মৃত কালুর পুত্র আবুল কালাম জানান, মোহাম্মদ হোছন প্রকাশ মাছন ধান ক্ষেত্রে বিষ মারার স্প্রে মেশিন বানাচ্ছে আমি দেখেছি।

জমির মালিক গিয়াস উদ্দিন জানান, মোহাম্মদ হোছন প্রকাশ মাছন বর্গাচাষ করার জন্য আমার থেকে জমি চেয়েছিলো। আমি তাকে জমি না দেওয়ায় আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বর্গাচাষার জমিতে আগাছানাশক বিষ প্রয়োগ করে।

এলাকার সচেতন মহল জানান, ধান ক্ষেতে এভাবে বিষ প্রয়োগ করলে কৃষকেরা আর চাষ করবে না। এতে দেশের ক্ষতি হবে। অন্যায়কারীদেরকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •