আনিসুল হক একজন একপিস আরেকজন খুঁজে পাওয়া কঠিন

ডেস্ক নিউজ:

‘আনিসুল হক ছিলেন একজন একপিস, আরেকজন খুঁজে পাওয়া কঠিন। তারপরও এটা আমাদের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ। তার যে স্বপ্ন সেই স্বপ্ন যেন সত্যি হয়, এ নগরীকে আধুনিক নগরীতে রূপ দিতে, গ্রিন অ্যান্ড ক্লিন সিটি স্বপ্নকে বৃথা যেতে দেবো না।’ আজ শনিবার দুপুরে সদ্য প্রয়াত আনিসুল হকের বনানীর বাসভবনে লাশ দেখতে এসে এক প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

প্রতিক্রিয়া প্রকাশের শুরুতে তিনি বলেন, ‘তার দু’চোখ ভরা স্বপ্ন ছিল, স্বপ্ন ছিল ঢাকাকে আধুনিক সিটি হিসেবে গড়ে তুলবার। আমাদের অনেক বড় ক্ষতি। বাংলাদেশের অনেক ক্ষতি হয়ে গেল। ব্যক্তিগতভাবে আমিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গেলাম।’

তিনি বলেন, ‘মানুষকে তিনি ভালোবাসতেন, তিনিও মানুষকে ভালোবাসতেন। তার প্রমাণ আজ তার বাসভবনে, ঢাকা মহানগরীতে শোকাতুর মানুষের ঢল। একজন মানুষ কত জনপ্রিয় হলে, মানুষের ভালোবাসার ঢেউ এভাবে উপচে পড়ে। আজকে মহানগরীতে সেউ দৃশ্যপটই দেখলাম। বহু মানুষকে কান্নার নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে তিনি চলে গেলেন। এ শূন্যতা সহজে পূরণ হওয়ার নয়। এমন কর্মোদ্যমী এমন পরিশ্রমি বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী তেমন মানুষ তিনি জীবনে কমই দেখেছেন।’

তিনি নিজেকে আনিসুল হকের পরিবারের সদস্যের মতো উল্লেখ করে বলেন, ‘তারা একই এলাকার বাসিন্দা। স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, গত বছর আনিসুল হকের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে লাখো মানুষের ঢল নেমেছিল। এখনও ব্যানারে পোস্টারে সেই স্মৃতিচিহ্ন রয়ে গেছে। এখনও বিলবোর্ডে তার ছবি রয়ে গেছে। যা এখন শুধুই অতীত।’

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতার

তিন মাস পর কারামুক্ত শহিদুল আলম

কাবুলে ঈদে মিলাদুন্নবীর জমায়েতে বোমা হামলায় নিহত ৪০

হেফাজত কাউকে সমর্থন দেবে না : আল্লামা শফী

কক্সবাজার শহরে যানজট নিরসনে জেলা পুলিশের চেকপোস্ট স্থাপন

নির্বাচনী সমীকরণ : আসন কক্সবাজার-৪

জিএম রহিমুল্লাহর ইন্তেকালে নেজামে ইসলাম পার্টি ও ইসলামী ছাত্রসমাজের শোক

আদর্শ নেতৃত্ব সৃষ্টির জন্য সৎকর্মশীলদের সান্নিধ্য অপরিহার্য

শেষ মুহূর্তে তারুণ্যের শক্তি দেখাতে চান সফল উদ্যোক্তা আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ

রামুতে মাসব্যাপী পণ্য প্রদর্শনী মেলা উদ্বোধন

রামুতে জেএসসিতে এ-প্লাস ও বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

’সুজন’ চকরিয়া উপজেলা কমিটি গঠিত

বদির স্ত্রীকে আ. লীগের প্রার্থী ঘোষণা

প্রেমে বাঁধা দেওয়ায় ছাত্রীর মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে গৃহশিক্ষক

কক্সবাজারে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

জিএম রহিমুল্লাহর মৃতুতে জেলা বিএনপির শোক

জিএম রহিমুল্লাহ’র মৃত্যুতে কক্সবাজার পৌর পরিষদের শোক

বিশ্বের সর্বোচ্চ ১৫০ বছর বয়সের জীবিত মানুষ খুটাখালীর সিকান্দর!

আলোকচিত্রী শহিদুল আলম কারামুক্ত

৩০ নভেম্বর কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হবে ‘ওয়াকাথন ২০১৮’