এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

চকরিয়ায় উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের গলায় ফাঁস লাগিয়ে রিমা আক্তার (১৪) নামের নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।১ডিসেম্বর শুক্রবার রাত ৭টার দিকে  বিএমচর ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের পুচ্ছালিয়া পাড়া এলাকায় নিজ ঘরের তীরের সাথে উড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে এ আত্মহত্যা করেন। নিহত ছাত্রী পুচ্ছালিয়া পাড়া এলাকার দুবাই প্রবাসী নুরুল আমিন বাবুলের কন্যা এবং বহদ্দার কাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী বলে সুত্রে জানায়।

জানা গেছে, উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের পুচ্ছালিয়া পাড়া এলাকার বাসিন্দা ও নিহত ছাত্রীর পিতা নুরুল আমিন বাবুল পরিবারের জীবন জীবিকা নির্বাহের জন্য দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে রয়েছেন।তার সংসারে চারজন ছেলে-মেয়ে আছে।নিহত ছাত্রীর মা গত ২দিন পূর্বে তার ছেলে-মেয়েকে বাড়ীতে রেখে বাপের বাড়ীতে(নানার)বাড়িতে যান।শুক্রবার রাত ৭টার দিকে বাড়িতে থাকা ভাই-বোনের লোকচক্ষুর আড়ালে বাবুলের বড় কন্যা স্কুল পড়ুয়া রিমা আক্তার তাদের বসতঘরের উপরে তীরের সাথে রশ্মি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।ঘটনার সময় রিমা ছাড়া বাড়িতে নাকি আর কেউ ছিলনা।পরে বাড়ির পাশ্বোক্ত লোকজন এগিয়ে এসে নিহতের লাশ দেখে পুলিশ ও স্থানীয় চেয়ারম্যানকে খবর দেয়।তবে কি কারণে ওই ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি।খবর পেয়ে মাতামুহুরী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মুহাম্মদ শরিফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে পৌছে ছাত্রী রিমা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে উপজেলার মাতামুহুরী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মুহাম্মদ শরিফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,নিহত ছাত্রীর লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।তার গলায় রশ্মি দিয়ে ফাঁস লাগানো দাগ রয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে তাঁর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •