পেকুয়া সুতাচোরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  দ্বন্দ্ব নিরসনে পুলিশী বৈঠক 

মো:ফারুক, পেকুয়া:

পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের সুতাচোরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দানকৃত জমি নিয়ে দুই পক্ষের বিরোধ চরম আকার ধারণ করেছে। বিরোধ নিম্পত্তিতে আদালতে মামলা দায়ের করা হলে পেকুয়া থানার ওসিকে তদন্তের নির্দেশ দেয় আদালত। পেকুয়া থানার ওসি’র নির্দেশে এসআই বিপুল চন্দ্র রায় বিরোধ নিরসনে দুই পক্ষকে নিয়ে বৈঠক করেছেন। সোমবার ২৭ (নভেম্বর) দুপুরে সুতাচোরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্টিত হয়।

জানা গেছে, আরএস ২৮ বাট্টা ৬০ খতিয়ানের ১৭৮৪ বাট্টা ১৮৮২ দাগের আন্দর ৪০শতক জমির উপর ১৯৭২ সালে সুতাচোরা স্কুলটি প্রতিষ্টিত হয়। পরে এটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসাবে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করে। দাতা হিসাবে এ জমি দান করেছিলেন মৃত মাষ্টার মো: ইদ্রিস। পরবর্তিতে তার ছেলে আনোয়ার হোসেন এ স্কুলটিতে দাতা সদস্য হিসাবে পরিচালনা করে আসছিলেন। কিন্তু স্কুলটির জমি ওই খতিয়ানের উপর ছিলনা দাবী করেন একই এলাকার মৃত আশরাফ মিয়ার ওয়ারিশ রেজাউল করিম গং। স্কুলের আসল খতিয়ান হল ২৮ বাট্টা ২৮ দাগের আন্দর ১৭৭৭ খতিয়ানের। যা তাদের প্রাপ্য সম্পত্তি। এ নিয়ে চরম বিরোধ দেখা দিলে ওই স্কুলের শিক্ষক মাষ্টার মোদ্দাসের মুরাদ চকরিয়া আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং১৩৭২/১৭ইংরেজি। যা বর্তমানে পেকুয়া থানায় তদন্তাধীন আছে এবং পুলিশ সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষ নিয়ে বৈঠক করেন। বৈঠকে রেজাউল করিম গং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখালেও আনোয়ার গং কোন ধরণের কাগজ দেখাতে পারেনি। যার কারণে পুলিশ জমিটি পরিমাপ করে যার জায়গা তাকে বুঝিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন।

রেজাউল করিম বলেন, সুতাচোরা স্কুলের জমিটি আমাদের। যা কাগজপত্র বিশ্লেষন করে বিভিন্ন বৈঠকে প্রমানীত হয়। কিন্তু আনোয়ার গং জোরপূর্বক তাদের দখলে রাখার চেষ্টা করছে। তারা কিছুতেই স্কুলের দাতা সদস্য হতে পারেনা। আমাদের জমি আমরাই স্কুলের দাতা সদস্য। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার সুবিধার্তে বিরোধ মিমাংসায় শিক্ষক মোদাচ্ছের মুরাদ ভুমিকা রাখার চেষ্টা করণে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে আনোয়ার হোসেন। স্কুলের জমি প্রকৃত মালিককে বুঝিয়ে দেওয়া ও তার উপর হামলার ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। সোমবারের বৈঠকেও আনোয়ার হোসেন কোন ধরণের কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। যার কারণে পরিমাপ করে জমিটি বুঝিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। স্কুলের জমি স্কুলে থাকবে। আমাদের দাবী প্রতিষ্টা করার জন্য আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি।

স্কুল কমিটির সভাপতি আবুল কাশেম বলেন, স্কুলের জমিটি আসলে আনোয়ার হোসেন গংয়ের নয়। জমি প্রকৃত মালিক রেজাউল করিম গং। যা পরিমাপ করলে বের হয়ে আসবে। এ দ্বন্দ্বের কারণে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়াও প্রভাব পড়ছে। বিষয়টি দ্রুত সমাধান করার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবী জানান তিনি।

পেকুয়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) বিপুল চন্দ্র রায় বলেন, সুতাচোরা স্কুলের জমি বিরোধ নিয়ে মাননীয় আদালতে মামলা দায়ের করেন স্কুলের শিক্ষক মোদাচ্ছের মুরাদ। যার তদন্তভার দেওয়া হয় পেকুয়া থানার ওসি মহোদয়কে। তার নির্দেশে আমি সরেজমিন গিয়ে দ্রুত বিরোধ মিমাংসায় জমি পরিমাপ করার নির্দেশ প্রদান করি। পরিমাপে ওই জমির প্রকৃত মালিক যারা তারাই হবে স্কুলের দাতা।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

নবাগত জেলা জজ দায়িত্ব গ্রহন করে কোর্ট পরিচালনা করেছেন

নজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমান

কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে  “শুদ্ধ উচ্চারণ, আবৃত্তি, সংবাদপাঠ ও সাংবাদিকতা” বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা 

রামুর কচ্ছপিয়াতে রুমির বাল্য বিবাহের আয়োজন

সরকার শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে- এমপি কমল

আইসক্রিমের নামে শিশুরা কী খাচ্ছে?

উদীচী কক্সবাজার সরকারি কলেজ শাখার দ্বিতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত

পেকুয়ায় বৃদ্ধকে কুপিয়ে জখম

আনিস উল্লাহ টেকনাফ উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত

চকরিয়া উপজেলা যুবদলের কমিটি বিলুপ্ত ও আহবায়ক কমিটি গঠিত

জেলা আ.লীগের জরুরি সভা শুক্রবার

চবি উপাচার্যের সাথে হিস্ট্রি ক্লাবের সাক্ষাৎ

পেকুয়ায় কুপে আহত ব্যবসায়ী হাসপাতালে যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে

সদর-রামু আসনে নজিবুল ইসলামকে নৌকার একক প্রার্থী ঘোষণা পৌর আ. লীগের

যোগাযোগ মন্ত্রীর আগমনে ঈদগাঁওতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

রাষ্ট্রপতির প্রতি আহবান: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে স্বাক্ষর না সংসদে ফেরৎ পাঠান

উত্তপ্ত চট্টগ্রাম কলেজ, সক্রিয় বিবদমান তিনটি গ্রুপ

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠে আন্ত:ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হোপ ফাউন্ডেশনের ৪০শয্যার হসপিটাল উদ্বোধন

পৌর কাউন্সিলরসহ ৪ মাদক কারবারির বাড়িতে অভিযান, নারীসহ দুই জনের সাজা