এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

চকরিয়ায় উপকূলীয় বদরখালী বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে প্রায় শতাধিক ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করেছে। এসময় বাজারের গলিতে ও সড়কের ফুটপাত দখল করে অবৈধভাবে ব্যবসা করার অপরাধে আদালত ৬ প্রতিষ্টানকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে।২৬নভেম্বর রবিবার বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত একটানা ভ্রাম্যমান আদালত বদরখালী বাজার এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন।বদরখালী বাজারে এ অভিযানের ফলে এলাকায় প্রায় ৫০হাজার জনগোষ্ঠী স্বস্তির নি:শেষ ফেলেছে বলে সুত্রে জানান।

সুত্রে জানাগেছে,উপজেলা পরিষদের মাসিক সভার সিদ্বান্তের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান ও বদরখালী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ(এস আই)অরুণ কান্তি চাকমা এবং উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো.জয়নাল আবদীনের নেতৃত্বে বদরখালী বাজারে অভিযান চালায়।এ সময় বিভিন্ন মুদির দোকানদার চলাচল পথ দখল করে যত্রতত্র মালামাল রাখা,অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে হোটেলে খাবার তৈরি ও মহাসড়কে রাস্তার জায়গা দখল করে দোকান বসানোর দায়ে ৬ ব্যবসায়ী প্রতিষ্টানকে ৬০হাজার টাকা ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানা করেন।অভিযানে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বাজারে নুরুল কাদের মালিকানাধীন মুদির দোকান ছোটন ব্রাদার্সকে ১০হাজার,আহমদ হোসেনের মালিকানাধীন মুদির দোকান তানিয়া ষ্টোরকে ৫হাজার টাকা,হামিদুর রহমানের মালিকানাধীন মদিনা ষ্ট্রীল মার্টকে ১০হাজার টাকা,রবিউল আলমের মালিকানাধীন কুমিল্লা শাহ সুন্দর খাবার হোটেলকে ১৫হাজার টাকা,মুহাম্মদ আলী মালিকানাধীন মা-মনি খাবার হোটেলকে ১০হাজার টাকা ও গাছ ব্যবসায়ী মুহাম্মদ আবদুল্লাহকে ১০হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।এ ছাড়াও বাজারের ভিতরে অলিগতিতে ভাসমান দোকান বসানো প্রায় শতাতিক দোকানকে আদালত উচ্ছেদ  করা হয়েছে।অভিযানের সময় বদরখালী বাজার ইজারাদার ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান খাইরুল বশর,ভ্রাম্যমান আদালতের পেশকার রতন কান্তি,পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ভূমি কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন, বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলম,সাংবাদিকসহ বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান কাছে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, অভিযানের সময় বাজারে ভেতরে অবৈধভাবে গড়ে তোলা প্রায় শতাধিক ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে।এ ছাড়া বিভিন্ন মুদির দোকানদার চলাচল পথ দখল করে যত্রতত্র মালামাল রাখা,হোটেলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি ও মহাসড়কে পাশে জায়গা দখল করে দোকান বসানোর দায়ে ৬ প্রতিষ্টানকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।এবং স্থানীয় চেয়ারম্যানকে মাইকিং মাধ্যমে বাজার এলাকায় জানিয়ে দেয়ার জন্য  এবং আগামী তিন দিনের ভেতরে ভাসমান দোকান সরিয়ে নেয়ার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।বাজার এলাকায় সুষ্টু পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে ও জনদুর্ভোগ কমাতে ধারাবাহিক ভাবে এ অভিযান অব্যাহত রাখবে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •