“মেধা ও জ্ঞানে গড়বো সোনার বাংলা”  স্লোগান কে প্রতিপাদ্য করে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ফাউন্ডেশন কর্তৃক কক্সবাজার কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু মেধাবৃত্তি’র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান লংবীচ হোটেলের হলরুমে গতকাল বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত এই মেধাবৃত্তিতে কক্সবাজারের বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের  ১২ শতাধিক  ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করে। তার মধ্য থেকে বৃত্তি প্রাপ্ত ৩৭১ জন ছাত্রছাত্রীকে সনদ ও পুরস্কার প্রদান করা হয়। যার মধ্যে বিভিন্ন ক্যাটাগরি তে প্রথম স্থান অর্জনকারী ৮ জনকে ডেক্সটপ কম্পিউটার প্রদান করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ফাইন্ডেশনের চেয়ারম্যান এড. সীমান্ত তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার-২ (মহেশখালী – কুতুবদিয়া) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিকG
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি ১৯৭১ এর পূর্ববর্তী ও পরবর্তী সময়ের বাঙালি জাতির ইতিহাসে জনকের সাহসদীপ্ত ও নিঃস্বার্থ, নিবেদিত রাজনৈতিক দূরদর্শীতা ও অকুতোভয়ী মনোভাবের কথা উল্লেখ করে তিনি তাঁর আদর্শকে ধারন করে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ সফল করতে অভিভাবকদের প্রতি আগামি প্রজন্মকে অসাম্প্রদায়িক মানসিকতায় গড়ে  তুলার  বিশেষ আহবান জানান । 
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, তিনি বঙ্গবন্ধু মেধাবৃত্তি ভবিষ্যতে প্রান্তিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোর অংশ গ্রহণ নিশ্চিত করার আশ্বাস দেন এবং বঙ্গবন্ধু, তাঁর স্বপরিবার সহ সকল শহীদদের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন ও সকলের দোয়া প্রার্থনা করেন।
এছাড়াও বক্তব্য রাখেন  চীপ জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তাওসিফ আজিজ, কক্সবাজার কেজি এন্ড মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক রমজান আলী। বঙ্গবন্ধু মেধাবৃত্তি কক্সবাজার কেন্দ্রের আহবায়ক ও কক্সবাজার পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন কবির। প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি রেজাউল করিম।
 অনুষ্ঠানের শুরুতে  সম্প্রতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ কে “ওয়ার্ল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজ” হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে উক্ত ভাষণের অংশ বিশেষ পরিবেশন করা হয়। পরে উপস্থিত সবার সম্মুখে যাদুর খেলা পরিবেশন করেন যাদুকর রাজীব। ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে উক্ত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •