বিশেষ প্রতিবেদক,সিবিএন

কক্সবাজার জেলার রামু থানাধীন ঈদগড় ইউনিয়নের ছকিরাকাটা এলাকার চাষীরা সন্ত্রাসীদের চাঁদা পরিশোধ করতে না পেরে ধান কাটতে পারতেছেনা।প্রশাসনের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালনা করা হলেও তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছেনা।

খোজ নিয়ে জানা যায়,কালিরছড়া নিবাসী মরহুম মোতাহের আহমদ চৌধুরী গং এর ৪২ কানি সম্পত্তি রয়েছে ঈদগড় ইউনিয়নের ছকিরাকাটা এলাকায় দীর্ঘ ৮০ বছর যাবত ভোগ দখলে আছে।গত ২ সপ্তাহ আগে হঠাৎ করে,স্থানীয় মরহুম নাসিম মেম্বারের ছেলে সাহাব উদ্দিন(৩৪),রুহুল আমিন(৩০) ও ইউনুছ(২৩) এর নেতৃত্তে চাষীদের ধান না কাটতে মানা করে এবং আবদূর রহমান(৪০) ও আব্দুর রশিদ(৪৩) ধান কাটতে গেলে তাদেরকে বেদম প্রহার করা হয়।বিষয়টি রামু থানাকে লিখিতভাবে অবহিত করলে তারা একাধিকবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও পালিয়ে যাওয়ার কারনে তাদেরকে আটক বা জিজ্ঞাসাবাদ করা সম্ভব হয়নাই।একাধিকবার নোটিশ দেয়া হলেও একবারও ইদগড় পুলিশ ফাড়িতে হাজির করা সম্ভব হয়নি।

অবশেষে স্থানীয় চাষা সুরত আলমকে(৪১) ডেকে তারা কানি প্রতি ৫ আড়ী করে ধান দেওয়ার শর্তে ধান কাটার প্রস্তাব দেয়।

স্থানীয় জনগনের সাথে আলাপ করে জানা যায়,তারা সমাজ বিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত আছে।রামু থানায় একাধিক ডাকাতি মামলার আসামী।দীর্ঘদিন সপরিবারে চট্টগ্রাম পলাতক থাকার পর সম্প্রতি এলাকায় ফিরে আবার পুরনো কর্ম শুরু করেছে।

অভিজ্ঞমহল মনে করে,শান্তি ও স্থিতিশীলতার জন্য এদের আইনের আওতায় আনা একান্ত জরুরী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •