আমান উল্লাহ আমান, টেকনাফ:

রোহিঙ্গাদের কারনে ক্ষতিগ্রস্থ উখিয়া-টেকনাফের চাকুরী প্রত্যাশীদের বাদ দিয়ে বেসরকারি বিভিন্ন এনজিও সংস্থা বহিরাগতদের নিয়োগ দেওয়ার কারণে সাধারন মানুষের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। এর প্রতিবাদে ২২ নভেম্বর বুধবার দুুপুরে টেকনাফের উনচিপ্রাংয়ে এলাকাবাসীর উদ্যোগে কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কে মানববন্ধ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা বলেন, উখিয়া টেকনাফে শত শত ডিগ্রীধারী চাকুরী প্রত্যাশীরা রয়েছে। বিভিন্ন এনজিও সংস্থা ক্ষতিগ্রস্থ স্থানীয়দের চাকুরীতে নিয়োগ না দিয়ে বহিরাগত বিভিন্ন জেলার অদক্ষ লোক নিয়োগ করে যাচ্ছে। অথচ এলাকার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার বাসিন্দারা আবেদন করলেও নিয়োগ না দিয়ে পানের দোকানে বা ডাস্টবিনে আবেদনগুলো ফেলে রাখে।

ফলে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার যুবকরা বেকার ও তাদের পরিবার মানবেতর দিন যাপন করছে। তারা আরো অভিযোগ করে বলেন, পাহাড়ে, নদীতে, সাগরে, কর্মক্ষেত্রে শুধু রোহিঙ্গা আর রোহিঙ্গা। শ্রম বাজারসহ চারদিকে রোহিঙ্গাদের বিচরন। রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করতে এসে বেশীরভাগ এনজিও কোন নিয়ম নীতি না মেনে মনগড়া কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এসব এনজিও তে স্থানীয় দক্ষ, অভিজ্ঞ ও যোগ্যতা সম্পন্ন লোকদের চাকুরীতে নিয়োগ না দিয়ে, রোহিঙ্গা ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে বহিরাগত লোকজনদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। অথচ ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে স্থানীয়রা। এতে প্রশাসন ও স্থানীয় এমপির নির্দেশনাও উপেক্ষা করছে বেশীরভাগ এনজিও। স্থানীয়দের চাকুরী দেওয়ার কথা বললেই এনজিও মোয়াস উল্টো হুমকি দেন বলে জানান বক্তারা। মানববন্ধনে দলমত নির্বিশেষে সকলেই অংশ নেন।

অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক আব্দুল খলিল চৌধুরী, আওয়ামীলীগ নেতা আজিজুর রহমান, হোয়াইক্যং ইউনিয়ন (উত্তর) শাখার সভাপতি মাসুক শাহরিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান ওয়াসিম, উনচিপ্রাং স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি আয়ুব আলী, ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক শহীদ উল্লাহ ফাহাদ, কফিল উদ্দিন, চাকুরী প্রার্থীদের মধ্যে মিজানুর রহমান, হাসনা হেনা, তপুরা আক্তার, আবুল কালাম, আব্দুল মালেক, রাশেদুল ইসলাম, আবু সেফা, আবদুর রহামন হেলাল উদ্দিন, মোঃ সায়েম, রনি মল্লিক, নাসিমা আক্তার, আহমুনা আক্তার বক্তব্য রাখেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •