এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও:
সারাদেশব্যাপী ৭৯টি প্রথম শ্রেনীর ফায়ার ষ্টেশন নির্মান প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ঈদগাঁও ফায়ার ষ্টেশনকে। এমনকি প্রতি শতক জায়গার মুল্যে ও নির্ধারনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এটি অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ শুরু হবে বলে আশাবাদী ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন ইনর্চাজ শাফায়েত হোসেন। এই নিয়ে খুশিতে উৎফুল্ল হয়েছেন সর্বশ্রেনী পেশার মানুষজন। ঈদগাঁওতে প্রথম শ্রেনীর ফায়ার ষ্টেশন নির্মিত হলে সেখানে অফিসার সহ ৩৫ জন জনবলের জন্য থাকবে ব্যারাক ভবন, অত্যাধুনিক গাড়ী,পাম্প,উদ্বার সরঞ্জাম সহ যন্ত্রপাতি থাকবে ঐ ষ্টেশনে, খেলার মাঠ, পুকুর, প্রশিক্ষনের জন্য আলাদা জায়গাসহ ইত্যাদি। প্রাথমিক ভাবে একটি জায়গা পরির্দশন সম্পন্ন করা হয়। এ ব্যাপারে ককসবাজার ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন ইর্নচাজ শাফায়েত হোসেনের সাথে আমাদের ককসবাজারের এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি – গেল অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে সারাদেশে ৭৯টি প্রথম শ্রেনীর ফায়ার ষ্টেশন নির্মান প্রকল্পে ঈদগাঁও ফায়ার ষ্টেশনটি ও অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন। উল্লেখ্য যে, দীর্ঘবছর ধরে ঈদগাঁওবাসী একটি ফায়ার সার্ভিস স্থাপনের জন্য আন্দোলন সংগ্রাম করে আসছিল। এমনকি জেলা সদরের বৃহৎ বানিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারটিতে পূর্বে কয়েক দফা অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়ে লাখ লাখ টাকার মালামালসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। অন্যদিকে বৃহত্তর ঈদগাঁও তথা ছয় ইউনিয়নের প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলে ও নানা সময়ে অগ্নিকান্ডের মত ঘটনা ঘটেছিল। কিন্তু এসব অগ্নিকান্ড নিয়ন্ত্রন করতে দূরবর্তী এলাকা ককসবাজার কিংবা চকরিয়া থেকে ফায়ার সার্ভিস আসতে হয় বহু কষ্টের বিনিময়ে। ঈদগাঁওতে এবার দীর্ঘকালের দাবী, ফায়ার ষ্টেশন স্থাপনের ইঙ্গিত পাওয়ায় খুশিতে উৎফুল্ল হয়েছেন বিশাল এলাকাবাসী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •