cbn  

মোহাম্মদ শফিক, কক্সবাজার:
সড়ক ও জনপথে কর্মরত ৭ হাজার ৫৯ জন শ্রমিক-কর্মচারীর চাকুরী স্থায়ীকরণের দাবী জোরালো হচ্ছে।
এ দাবীতে রবিবার (১২ নভেমবর) সকাল ১১টার দিকে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ মিছিল শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
একই সঙ্গে হাইকোর্টে-সুপ্রীম কোর্টে দায়েকৃত মামলার রায়/নির্দেশনা দ্রুততম সময়ের মধ্যে বাস্তবায়ন করাসহ ৭ দফা দাবী দেয়া হয়েছে।
বাংলাদেশ সড়ক ও জনপথ শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি আকবর হোসেনের সভাপতিত্বে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানায়, দেশের প্রায় ১৭ কোটি মানুষে যাতায়াতের সড়ক নির্মাণে তারা কাজ করছে। তাদের শ্রম ও ঘামের উপর দিয়ে দেশ এগিয়ে চলেছে। কিন্তু শ্রমিকদের সেই পরিশ্রম বারবার উপেক্ষিত। যুগের পর যুগ চাকুরী করেও তাদের ভাগ্যের কোন পরিবর্তন হয়নি। অবিলম্বে তাদের চাকুরী স্থায়ী করতে হবে। অন্যথায় আরো বৃহৎ কর্মসুচি দেয়া হবে। তাদের দাবী বাস্তবায়ন করা না হলে এ মাসেই কাফনের কাপড় পড়ে সারাদেশে একযোগে ধর্মঘটসহ কঠোর আন্দোলন সংগ্রামের হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে সড়ক ও জনপথের শ্রমিক কর্মচারীরা।
সুদীর্ঘকাল ধরে তারা সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরে কর্মরত। এখনো তারা পূর্ণাঙ্গ সরকারি স্বীকৃতি পায়নি। তাদের মধ্যে এমন লোকও আছে যারা ৩০/৩৫ বৎসর ধরে চাকুরী করছে। এরপরও তাদের কোন মূল্যায়ন নেই।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবদুর রহিমের পরিচালনায় বক্তারা আরো জানায়, চাকুরি স্থায়ী করার দাবীতে তারা অনেক দিন ধরে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। এ দাবীতে ২০১৫ সালের ১১ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরাবরে তারা স্মারকলিপি প্রদান করে। এর আলোকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বরাবরে সুপারিশ করে প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু সেই আদেশ এখনো আলোক মুখ দেখেনি।
কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ইব্রাহিম, হারুন অর রশিদ, বকুল লাল বড়–য়া, সহ-সাধারণ সম্পাদক আরফানুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ আহমদ, কোষাধ্যক্ষ আবুল কাশেম, দপ্তর সম্পাদক হানিফ মিয়া প্রমুখ।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •