cbn  

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ,কক্সবাজার সদর
কক্সবাজার সদরের শিল্পনগরী ইসলামপুরে প্রতিষ্ঠিত এক ব্যবসায়ীকে উপর্যপুরী ছুরিকাঘাত করেছে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। আহত এ ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরন করেছে স্থানীয়রা। বর্তমানে তার অবস্থা আশংকাজনক বলে গেছে।১০ নভেম্বর রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে ঘটনাটি ঘটে বর্নিত ইউনিয়নের পুর্ব নাপিতখালী গ্রামে।আহত ব্যবসায়ী একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান অছিউর রহমানের পুত্র ও মদিনা সল্ট এবং এ আর সল্টের স্বত্বধীকারী ফিরোজ আহম্মদ কোম্পানি।আটককৃতরা হল একই এলাকার ৬ নং ওয়ার্ডের ইদ্রিসের পুত্র মোঃ সেলিম উদ্দীন, এসএম কবির ড্রাইভারের পুত্র ইমরান। প্রাপ্ততথ্য ও আহত ফিরোজের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,সাবেক চেয়ারম্যান অছিউর রহমানের মালিকানাধীন বাড়ির উত্তর পাশে পরিত্যক্ত একটি মাছের জলাশয়ে মেশিন বসিয়ে শুষ্ক করে মাছ লুট করার জন্য সেলিমের নেতৃত্বে ইমরান,লাল মিয়ার পুত্র জসিম উদ্দীন,ডুলা ফকির রাস্তার মাথা এলাকার জাফর আহম্মদ ড্রাইভারের পুত্র নুরুল আবছারসহ আরও কয়েকজন চোর সিন্ডিকেট জলাশয় সংগ্লন এলাকায় অবস্থান করছিল। এমন সময়ে বটতলা ষ্টেশনস্থ নিজ অফিস থেকে বাড়ি ফিরছিল চেয়ারম্যান পুত্র ফিরোজ। মেশিন বসানোর বিষয়টি তার নজরে আসলে বাধা প্রদান করে ব্যবসায়ী ফিরোজ এসময় উত্তেজিত হয়ে সেলিমের নেতৃত্বে অপরাপর দুর্বৃত্তরা তাকে উপর্যপুরী ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।রক্তাক্ত অবস্থায় সেলিম ও ইমরানকে ধরে রেখে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে চাকুসহ হাতেনাতে আটক করে। পরে পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ফিরোজকে উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া জমজম হাসপাতালে প্রেরন করে।অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চমেকে পাঠিয়ে দেয়।এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে। স্থানীয় এমইউপি শাহাব উদ্দীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ইনচার্জ মোঃখাইরুজ্জামান ঘটনাস্থল থেকে জনতার সহায়তায় দুইজনকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন বলে জানায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •