cbn  

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

চকরিয়ায় স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত ও ইভটিজিং করার দায়ে শহিদুল ইসলাম (৩২) নামে এক বখাটে যুবককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুরুদ্দীন মো.শিবলী নোমান। ৯নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে নির্বাহী কর্মকর্তার ভ্রাম্যমান ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তিনি এ আদেশ প্রদান করেন।যুবক শহিদুল ইসলাম উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ভেন্ডিবাজারস্থ সওদাগর পাড়া এলাকার বাদশা মিয়া পুত্র বলে জানা গেছে।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীর এ প্রতিবেদককে জানান,চকরিয়া পুরাতন বিমান বন্দর রোড়স্থ  কোরক বিদ্যাপীঠ ও চকরিয়া আবাসিক মহিলা ডিগ্রী কলেজ সড়কে নিয়মিত যাতায়তরত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের দীর্ঘ দিন ধরে নানা ভঙ্গিমা দেখিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছিল বখাটে যুবক শহিদুল ইসলাম।বুধবার রাত্রে কোরক বিদ্যাপীঠের মহিলা হোস্টেলের সামনে বখাটে যুবক ছাত্রীদের তার আচরণ ভঙ্গিমা দেখিয়ে উত্ত্যক্ত করার সময় স্থানীয় জনতা ও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে হাতে নাতে ধরে পেলে।পরে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল আখের চকরিয়া থানা পুলিশকে খবর দেয়।থানার উপপরিদর্শক(এস আই)এনামুল হক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বখাটে যুবক শহিদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। ৯নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্রেট নুরুদ্দীন মো.শিবলী নোমানের নেতৃত্বে আদালত বসিয়ে সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে বখাটে শহিদুল ইসলামকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদেশ প্রদান করেন।বখাটে যুবক শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ২০০০এর ১১(গ) ধারা মতে আদালতে মামলা নং-৫১৭/২০১৭ গ্রেপ্তারী পরোয়ানাজারী রয়েছে বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •