cbn  

এম.মনছুর আলম,চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় উপজেলার শাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনাস্থ বাটাখালী মাতামুহুরী নদীর পাশ্বোক্ত জুয়ার বোর্ডে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।ধৃত জুয়াড়িরা হলেন,পার্বত্য বান্দরবন লামা পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের লামার মূখ এলাকার মৃত জয়নাল আবেদীনের পুত্র আল মামুন(৩৮),চকরিয়া পৌরসভা ৮নম্বর ওয়ার্ডের চিরিংগা সোসাইটি পাড়া এলাকার শের আলীর পুত্র মো.সালাহ উদ্দিন(৩০),পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের কাহারিয়া ঘোনা এলাকার আবদু শুক্কুরের পুত্র মোহাম্মদ মাহিন(২৮)।৮অক্টোবর বুধবার দুপুর ২টার দিকে বাটাখালীস্থ আরমানের জুয়ার বোর্ড এলাকা থেকে তিন জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।এ নিয়ে থানায় সংশ্লিষ্ট ধারায় জুয়ার মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ সুত্রে জানাগেছে,স্থানীয়দের অভিযোগে ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চকরিয়া পৌরসভা এলাকার তরছপাড়াস্থ মাতামুহুরী নদীর এলাকায় সেলিমের নিয়ন্ত্রণাধীন জুয়ার বোর্ডে গত ৭অক্টোবর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই জোয়ার বোর্ড গুড়িয়ে ফেলে।ওই এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে জুয়ার বোর্ড বসিয়ে চালিয়ে আসছিল স্থানীয় জুয়া খেলা নিয়ন্ত্রনাধীন মো.সেলিম উদ্দীন।একই ভাবে শাহারবিল ইউনিয়নের বাটাখালীস্থ মাইজঘোনা এলাকায় নদীর ধারে এনাম মেম্বারের ছোট ভাই আরমান জুয়ার বোর্ড বসে জুয়াখেলা চালিয়ে আসছিল।থানার উপপরিদর্শক(এস আই)এনামুল হক ও সুকান্ত চৌধুরীর নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে অভিযান চালিয়ে ওই জুয়ার আসর থেকে তিন জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করেন পুলিশ।এ সময় পুলিশ জুয়ার বোর্ড থেকে নগদ ৪১হাজার ৩৫০টাকা ও ৪টি জুয়াড়ির ব্যবহ্নত মোবাইল উদ্ধার করেন।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন,থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বাটাখালীস্থ মাইজঘোনা এলাকা থেকে খেলা চলাকালীন জুয়ার বোর্ড থেকে তিন জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।তাদের কাছ থেকে নগদ টাকাসহ ৪টি মোবাইল জব্ধ করা হয় ।ধৃত জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে থানার এস আই এনামুল হক বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •