ঈদগড় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ডাক্তার :কাগজে অাছে বাস্তবে নেই

জহির খন্দকার:

সরকার সারা দেশের ন্যায় রামু উপজেলায় ও চিকিৎসা সেবা জনগণের দোড়গোড়ায় পৌছাতে ঈদগড় ইউনিয়ন উপ-স্বাস্হ্য ও স্বাস্থ্য ও পরিবার কলাণ কেন্দ্র স্তাপন করেছেন।অার এ কেন্দ্রে এমবিবিএস পদ মর্যদার একজন চিকিৎসক মেডিকেল অফিসার হিসাবে নিয়োগ দিয়েছেন সাধারণ মানুষেের নাগালে চিকিৎসা সেবা পৌছানোর লক্ষে। কিন্ত নিয়োগ দেওয়া সেই চিকিৎসক মেডিকেল অফিসারের পদটি সৃস্টির পর থেকে কর্মস্থলে যোগদান না করে অনুপস্তিত রয়েছে।অভিযোগ রয়েছে যাকেই উক্ত কেন্দ্রে মেডিকেল অফিসার হিসাবে পোস্টিং দেওয়া হয় সেই যোগদান না করে বদলি হয়ে অন্যত্র চলে যায়।এই ভাবেই চলছে দিনের পর দিন। ফলে ঈদগড়ের হাজার হাজার অসহায় মানুষ সরকার প্রদক্ত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
প্রাপ্ততথ্যানুসন্দানে জানা যায় জেলা সিবিল সার্জন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও প প কর্মকর্তা সহ সংশ্লিষ্টদের নজরদারির অভাবে দিনের পর দিন ঈদগড় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে এম বি বি এস ডাক্তার অনুপস্তিত থাকার সুযোগ পাচ্ছে ।একজন চিকিৎসক সহকারী একজন পরিবার পরিদর্শিকা ও একজন অায়া দিয়ে চলছে ঈদগড় উপ-স্বাস্হ্য কেন্দ্র টি।ফলে চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত স্তানীয়দের চিকিৎসার জন্য বাধ্য হয়ে পাশ্ববর্তি ঈদগাও ও কক্সবাজার শহরে যেতে হয়।সুত্র দাবী করেছে ২০০৮ সালে ঈদগড় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে মেডিকেল অফিসারের পদটি সৃস্টি করে একজন এম বি বি এস ডাক্তার নিয়োগ দেওয়া হয়।কিন্ত সেই ডাক্তার অদ্যবদি কর্মস্তলে যোগদান করেনি বলে এলাকাবাসী দাবী করেছ। অথেচ সিবিল সার্জন অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্য ও নিয়োগপ্রাপ্ত ডাক্তারের নাম তালিকায় ও রয়েছে।তবে এই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাথে একাধিক বার যোগাযোগ করা হলে তারা বার বার ঈদগড়ে নিরাপত্তার অভাবে কোন ডাক্তার নিয়োগ দিলে ও ঈদগড়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে যোগদান করছে না বলে ডাক্তারদের পক্ষাবলম্বনের চেস্টা করে।
সরজমিনে ঘুরে দেখা গেছে ঈদগড় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে অন্যান্য পদ মর্যদার কর্মকর্তা /কর্মচারি থাকলে ও চিকিৎসক বা ডাক্তার নেই।তারা কেহ জানে না এ কেন্দ্রে একজন এম বি বি এস ডাক্তার নিয়োগ দেওয়া অাছে। সুত্র মতে ঈদগড়ের হাজার হাজার হতদরিদ্র মানুষ উন্নত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত থাকলে ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কোন প্রকার মাথাব্যথা নেই।কখন ও তারা পরিদর্শনে পর্যন্ত অাসে না বলে গুরুত্বর অভিযোগ উঠেছে।
রামু উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স ইনচার্জ ডা: অাব্দুল মান্নানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান ২০১৬ সালে ডা:রাজিয়া সোলতানা নামের একজন এম বি বি এস ডাক্তার মেডিকেল অফিসার হিসাবে ঈদগড় স্বাস্হ্য কেন্দ্রে পোস্টিং দেওয়া হয়েছিল। উনি অনেক দিন দায়িত্ব পালন করে পরে বদলি হয়ে অনত্র চলে গেছে।স্বাস্হ্য কেন্দ্রের প্রতিবেশি বিশিস্ট ব্যবসায়ী সালাহ উদদীন জানান কোন মেডিকেল অফিসার এই পর্যন্ত যোগদান করেনি।মেডিকেল অফিসার যোগদান ও দায়িত্ব পালন শুধু মাত্র কাগজে কলমে। ঈদগড় স্বাস্হ্য কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিনিউটি অফিসার অাব্দুল সালামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান ঈদগড় স্বাস্হ্য কেন্দ্রে বর্তমানে এক জন কমিনিউটি অফিসার এক জন পরিবার পরিদর্শিকা ও একজন অায়া কর্মরত অাছে।স্বাস্থ্য মেডিকেল অফিসার ও ফার্মাসিটের পদ দুইটি সুস্টির পর থেকে থেকে শুন্য রয়েছে।ঈদগড় ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার শহিদুল ইসলাম জানান ঈদগড় ইউনিয়নের ৩০ হাজার মানুষের জন্য মাত্র একজন এম বি এস ডাক্তার ঈদগড় স্বাস্থ্য কেন্দে সেই এম বি এস ডাক্তারকে ঈদগড়বাসী কোন দিন দেখেনি।তিনি অনতিবিলম্ভে ঈদগড় স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসারের শুন্য পদটি পুরনের দাবী জানান।
ঈদগড়ের অবহেলিত মানুষের দোড়গোড়ায় স্বাস্হ্য সেবা পৌছে দেওয়ার লক্ষে একজন এম বি এস ডাক্তার মেডিকেল অফিসার হিনাবে ঈদগড় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পোস্টিং দেওয়ার জোর দাবী জানান

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

উখিয়ায় জেলা প্রশাসকের কম্বল ও গৃহসামগ্রী বিতরণ

বদরখালী পৌরসভা, মাতামুহুরী হবে উপজেলা- এমপি জাফর আলম

বিজয় সমাবেশ সফল করতে কক্সবাজারে আ. লীগের প্রস্তুতি সভা

বালুখালীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা: টাকা লুট, অস্ত্র উদ্ধার

কক্সবাজার শহরে প্রাইভেট কারে আগুন

প্রখ্যাত সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবীরের মৃত্যুতে সাংবাদিক ইউনিয়নর কক্সবাজার’র শোক

চকরিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবার মানোন্নয়নে সনাক মতবিনিময় সভা

সুশাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে উন্নয়নে কক্সবাজার-রামুকে এগিয়ে নেয়া হবে- এমপি কমল

১৫ হোটেল ও রেস্তোরাঁকে দুই লাখ ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা

চকরিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবার মাননোন্নয়নে সনাক এর মতবিনিময় সভা 

‘কাজী রাসেলকে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় জনগণ’

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ১২

চকরিয়া পৌরসভায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ছয়টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্ভোধন

পেকুয়ার ইটভাটা থেকে বিদ্যালয়ে ফিরলো ১২ শিশুশ্রমিক

কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির ভবন বর্ধিতকরণে দেড় কোটি টাকা বরাদ্দ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে জলবসন্ত রোগের প্রাদুর্ভাব

টেকনাফে ইয়াবাসহ রামুর নুর আটক

পেকুয়া বিএনপির ১১ নেতাকর্মী কারাগারে

চবি ছাত্রের কোটি টাকা উৎস ইয়াবা ব্যবসা!

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নতুন আতঙ্ক আরাকান আর্মি