হত্যা মামলার আসামীরা ধরাছোঁয়ার বাইরে, পালিয়ে বেড়াচ্ছে বাদী

আমান উল্লাহ আমান, টেকনাফ:
টেকনাফে হত্যা মামলার আসামীরা নিঃসংকোচ ও বীরদর্পে এলাকায় বিচরণ করে মামলার বাদীকে প্রাণনাশের হুমকী এবং ধমকীর অভিযোগ উঠেছে। অন্যদিকে তাদের হুমকী-ধমকীতে প্রাণ ভয়ে এবং আতংকে পালিয়ে বেড়াচ্ছে মামলার বাদী। হ্নীলা ইউনিয়নের পূর্ব লেদায় ঘটছে এ ঘটনা।

মামলার বাদী মোঃ আলম জানান, আমার ভাই ছিদ্দিককে যারা হত্যা করেছে তাদের বিরুদ্ধে ২৪ অক্টোবর টেকনাফ মডেল থানায় মামলা করেছি। কিন্তু ওই মামলার আসামীরা নিঃসংকোচ ও বীরদর্পে এলাকায় বিচরণ করছে। প্রতিনিয়ত মামলা তুলে নিতে আমাকে হুমকী দিয়ে যাচ্ছে। আসামীরা প্রভাবশালী ও সন্ত্রাসী হওয়ায় প্রতিনিয়ত নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ অবস্থায় ওই আসামী সন্ত্রাসীদের ভয়ে নিহত ছিদ্দিকের বিধবা স্ত্রী, বৃদ্ধ মাসহ পরিবারের সবাই নির্ঘুম রাত যাপন করছি।

এছাড়া আসামীরা ইয়াবা দিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে হয়রানী করবে বলে এলাকায় হাঁকাবকাসহ বিভিন্ন গালমন্দ করে বেড়াচ্ছে।

এদিকে মামলার এজাহার সুত্রে জানা গেছে, গত ১৯ অক্টোবর বৃহস্পতিবার বিকালে অস্ত্রে স্বস্ত্রে সজ্জিত পুর্ব লেদার মৃত কালা চানের পুত্র আবু ছিদ্দিককে রিফুজি বাজার হইতে বাড়ী আসার পথে লেদা মৌলভীপাড়াস্থ ধলাইয়ার বাড়ীর সামনে হতে জরুরী কাজ আছে বলে নিয়া যায়। এসময় পূর্ব থেকে উঁৎপেতে থাকা ধলা মিয়া, কালু মিয়া, মোঃ হানিফ, রহমত উল্লাহ, নুর কবির, আনোয়ার হোছাইন, আবদুল মালেক ও সোনা মিয়া অতর্কিতভাবে তাকে ঘিরে লোহার রড দিয়ে আবু ছিদ্দিকের পায়ে আঘাত করে উঠানে ফেলে দেয় এবং ছুরি দিয়া হত্যা করার উদ্দেশ্যে আবু ছিদ্দিকে আঘাত করে। এসময় সে মরণপন চিৎকার দিয়ে মাটিতে পড়ে যায় ও তাহার পেটের নাড়িভুড়ি বাহির হয়ে যায়। চিৎকার শুনিয়া ভাই মোহাম্মদ আলম ও স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল হতে বীরদর্পে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা প্রায় মৃত আবু ছিদ্দিককে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সরকারি হাসপাতালে রেফার করে। কক্সবাজার সদর হাসপাতালের চিকিৎসক জখমীর অবস্থা আশংকাজনক দেখে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২১ অক্টোবর ভোরে আবু ছিদ্দিকের মৃত্যু হয়।

পরে নিহতের ভাই মোঃ আলম বাদী হয়ে গত ২৪ অক্টোবর ৮ জনকে আসামী করে খুন করার অপরাধে টেকনাফ মডেল থানায় (৩৫ নং) মামলা দায়ের করেন।

এরপর থেকে আসামীরা মামলার বাদী মোঃ আলমকে মামলা তুলে নিতে চাপ দিতে থাকে। নয়তো তাকেও প্রাণে মেরে ফেলবে বলে প্রতিনিয়ত হুমকী ও ধমকী দিয়ে বীরদর্পে এলাকায় বিচরণ করছে বলে অভিযোগ করেছে বাদী মোঃ আলম।

তাদের হুমকী ধমকী থেকে রেহাই পেতে শিগগিরই আসামীদের আটক করতে কক্সবাজার পুলিশ সুপারের সূদৃষ্টি ও সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন মামলার বাদী।

cbn

সর্বশেষ সংবাদ

উখিয়ায় অবশেষে সিএনজি ভাড়া নির্ধারণ, মানুষের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

বস্তাভর্তি টাকা : এবার ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা গ্রেফতার

প্রকাশিত সংবাদে শাহিনুল ইসলামের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

উখিয়ায় ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

টেকনাফের সাংবাদিক নুরুল হোসাইনের জন্মদিন পালন

রামু লম্বরীপাড়া দারুল কুরআন নূরানী একাডেমীতে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

লোহাগাড়ায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

৪র্থ বারের মতো রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ হলেন উখিয়া সার্কেলের অতি: এসপি তাইয়ান

চকরিয়ায় মামলা তুলে না নেয়ায় বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি

টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়ন (উত্তর) বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠিত

ছনখোলা মাদলিয়া পাড়া হিলফুল ফুযুল শান্তি সংঘের কমিটি অনুমোদন

কাশ্মিরে দুর্বৃত্তের আচরণ করছে মোদি সরকার: অরুন্ধতী রায়

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নতুন কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয়

চকরিয়ায় ৩ দিনব্যাপী বৃক্ষ রোপন অভিযান ও ফলদ বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন

জুলুমবাজ সরকারের বিদায়ের প্রহর গুনছে জনগণ

মহেশখালী  ৩দিন ব্যাপী ফলদ বৃক্ষমেলা’র শুভ উদ্বোধন

চকরিয়ার শাহারবিলে পূর্বশত্রুতার জেরে হামলা: উল্টো মামলা, গ্রেফতার ৩

কানাডায় বাংলাদেশের রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আলোকচিত্র প্রদর্শনী

অরাজনৈতিক সংগঠন “আঁরা মধুখাইল্যা”র আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু