অনলাইন ডেস্ক :
আরাকানে ৭ হাজার রোহিঙ্গাকে ন্যাশনাল ভেরিফিকেশন কার্ড দিয়েছে মিয়ানমার সরকার। একমাসের জাতীয় যাচাইকরণ প্রক্রিয়া শেষে তাদেরকে এ ভেরিফিকেশন কার্ড দিয়েছে দেশটি।

মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বাধীন কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী এই প্রক্রিয়া শুরু হয়।

রাখাইনের অভিবাসন ও জনসংখ্যাবিষয়ক বিভাগের পরিচালক উ অং মিন জানান, প্রদেশটির যেসব এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে এসেছে সেখানে বায়োমেট্রিক পদ্ধতি ব্যবহার করে এ প্রক্রিয়া চলছে।

এক কর্মকর্তা জানান, ১৯৮২ সালের নাগরিকত্ব আইন অুনযায়ী কার্ড দেওয়া হচ্ছে। যদিও ওই আইনটি বিতর্কিত বলে সমালোচনা চলছে। ওই আইনে মিয়ানমারের প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গার নাগরিকত্ব অস্বীকার করা হয়।

এদিকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতন ও নৃশংসতার শিকার হয়ে এ পর্যন্ত বাংলাদেশে ৬ লাখেরও অধিক রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে। হত্যা করা হয়েছে কয়েক হাজার রোহিঙ্গাকে। জাতিসংঘ এ হত্যাকাণ্ডকে জাতিগত নিধন হিসেবে উল্লেখ করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •