cbn  

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ, কক্সবজার সদর:

কক্সবজার সদরের জালালাবাদে জমি বিরোধ নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত হয়েছে অন্তত ৬ জন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছে ২৯ অক্টেবর সকাল ৯ টায় বর্ণিত ইউনিয়নের মধ্যম বাহার ছড়া এলাকায়। ঘটনায় উভয় পক্ষের পরষ্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।একপক্ষ দাবী করছে বিশ লক্ষ টাকা ছিনতাই হয়েছে,অপর পক্ষের দাবী সীমানা প্রাচীর ভাংচুর,জমি নিয়ে পুর্বশত্রুতার জের ধরে ঘটনার সুত্রপাত। সংগঠিত ঘটনায় আহতরা হলেন বাহারছড়া এলাকার নুর আহম্মদের পুত্র নাজির হোসাইন,মোহাম্মদ হোসাইন,কামাল হোসাইন,মৃত আবদু রশিদের পুত্র মনির আহম্মদ,মোঃইসলাম,আকবর আহম্মদের পুত্র বোরহান উদ্দিন।

স্থানীয়ারা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে ঈদগাঁওস্থ একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে আশংকাজনক হওয়ায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরন করে।তারা সবাই সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে নাজির হোসাইনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।সরেজমিন এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়,উভয় পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি,সীমানা বিরোধ নিয়ে মনোমালিন্য ছিল। এরাই সুত্র ধরে ঘটনাটি ঘটেছে।আহত কামাল হোসাইন জানান,ঘটনারদিন সকালে তার ভাই নাজির হোসাইন বোনের বাড়ি থেকে ২০ লক্ষ নিয়ে ঘরে পৌছার আগে পুর্ব থেকে উৎপেতে থাকা স্থানীয় কবির আহম্মদের পত্র ছৈয়দ আলমের নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত্ব পথ আগলে ধরে পুর্বক টাকা গুলো ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পরিবারের সদস্য মোঃ হোসাইনসহ আমি এগিয়ে আসলে আমাদের উপরও হামলা চালিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে ছৈয়দ আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি টাকা ছিনতাইয়ের কোন ঘটনা ঘটেনি বলে জানায়।তারা আমাদের বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভাংচুর চালিয়েছে। বাধা দেওয়ায় আমাদের উপর হামলা চালায়। জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোফাচ্ছেল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। হাসপাতালে কয়েকজনকে দেখতে গেছেন বলে জানায়। সংগঠিত ঘটনায় উভয় পক্ষ মামলার প্রক্রিয়া চালাচ্ছেন। এ ব্যাপারে ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ খাইরুজ্জামান জানান,কোন পক্ষদ্বয় মামলা-অভিযোগ দায়ের করলে তদন্তপুর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •