উখিয়ায় রোহিঙ্গাদেরকে দেখতে আসছেন খালেদা,নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত

ফারুক আহমদ, উখিয়া ॥

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর বর্বরোচিত নিপড়ন ও হত্যাযজ্ঞের শিকার হয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া বিপন্ন রোহিঙ্গাদেরকে দেখতে ও তাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করতে আগামী সোমবার উখিয়ায় আসছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। তাঁর এ সফর কে ঘিরে পুরো জেলা জুড়ে নেতাকর্মীরা বেশ উজ্জেবিত। দেখা দিয়েছে আনন্দ উচ্ছ্বাস। সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সফর করতে জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠন ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন বলে জানিয়েছেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী।

এদিকে বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া রোহিঙ্গাদেরকে দেখতে ও ত্রাণ বিতরণের নির্ধারিত স্থান ও সার্বিক পরিস্থিতি পরিদর্শন করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য কেন্দ্রীয় বিএনপির ত্রাণ বিতরণ সম্বনয়ক গতকাল শনিবার সকাল ১১টায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী, কক্সবাজার সদর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল, উখিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সরওয়ার জাহান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোলতান মাহমুদ চৌধুরী।

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া গত শনিবার সকাল ১১টায় গুলশানের কার্যালয় থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছে। ৪ দিন সফর শেষে ১ নভেম্বর তিনি ঢাকায় ফিরবেন।

বিএনপির সাবেক মন্ত্রী মির্জা আব্বাস, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খাঁন, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভানেত্রী আফরোজা মির্জাসহ জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা বালুখালী, হাকিম পাড়া ও ময়নার ঘোনা রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস জানান, দেশনেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের কে সমবেদনা ও সহানুভুতি জানাতে এবং তাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করতে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরিদর্শনে আসছেন। এটা কোন রাজনৈতিক সফর নয়। তাই এখানে রাজনৈতিক করার প্রশ্নেই আসে না। স্থায়ী কমিটির অপর সদস্য নজরুল ইসলাম খাঁন বলেন, বিশাল ত্রাণের বহর নিয়ে রোহিঙ্গাদের সাহায্যার্তে বিএনপির চেয়ারপার্সনের এ সফর। বিএনপির পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে একাধিকবার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ সহ টিউবওয়েল ও স্যানেটারি ল্যান্ট্রিন স্থাপন করা হয়েছে।

এদিকে জেলা বিএনপি সহ উখিয়া উপজেলা বিএনপি এবং অঙ্গসংগঠন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে বরণ করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন। পুরো সড়ক জুড়ে রং-বেরংয়ের ব্যানার ফেস্টুন ও বিলবোর্ড টাঙ্গানো হয়েছে। নেতাকর্মীরাও বেশ উজ্জেবিত।

জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, ১শত ১০ মেট্টিকটন বিশাল ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া সোমবার সকালে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরিদর্শনে আসছেন। এছাড়াও ৩০ হাজারের অধিক পরিবারের জন্য শিশু খাদ্য ও সাথে রয়েছে। উখিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সরওয়ার জাহান চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, দেশনেত্রী নির্যাতিত রোহিঙ্গাদেরকে দেখতে এবং তাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করবেন। কোন রাজনৈতিক কর্মসূচী আমরা নেয় নিই।

 

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

শাহপরীরদ্বীপে সংঘবদ্ধ চক্রের ছয় সদস্যকে আটক

উখিয়ায় জেলা প্রশাসকের কম্বল ও গৃহসামগ্রী বিতরণ

বদরখালী পৌরসভা, মাতামুহুরী হবে উপজেলা- এমপি জাফর আলম

বিজয় সমাবেশ সফল করতে কক্সবাজারে আ. লীগের প্রস্তুতি সভা

বালুখালীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা: টাকা লুট, অস্ত্র উদ্ধার

কক্সবাজার শহরে প্রাইভেট কারে আগুন

প্রখ্যাত সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবীরের মৃত্যুতে সাংবাদিক ইউনিয়নর কক্সবাজার’র শোক

চকরিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবার মানোন্নয়নে সনাক মতবিনিময় সভা

সুশাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে উন্নয়নে কক্সবাজার-রামুকে এগিয়ে নেয়া হবে- এমপি কমল

১৫ হোটেল ও রেস্তোরাঁকে দুই লাখ ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা

চকরিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবার মাননোন্নয়নে সনাক এর মতবিনিময় সভা 

‘কাজী রাসেলকে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় জনগণ’

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ১২

চকরিয়া পৌরসভায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ছয়টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্ভোধন

পেকুয়ার ইটভাটা থেকে বিদ্যালয়ে ফিরলো ১২ শিশুশ্রমিক

কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির ভবন বর্ধিতকরণে দেড় কোটি টাকা বরাদ্দ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে জলবসন্ত রোগের প্রাদুর্ভাব

টেকনাফে ইয়াবাসহ রামুর নুর আটক

পেকুয়া বিএনপির ১১ নেতাকর্মী কারাগারে

চবি ছাত্রের কোটি টাকা উৎস ইয়াবা ব্যবসা!