cbn  

 মুুহিববুল্লাহ মুহিব:

রামু উপজেলার খুনিয়াপালংয়ে রোহিঙ্গা যুবকের দায়ের কোপে আব্দুল জব্বার (৩৫) নামে এক বাংলাদেশী নিহত হয়েছে। শুক্রবার গভীর রাতে খুনিয়াপালং ইউনিয়নের  হেডম্যান পাড়ায় এলাকায় এঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল জব্বার ঐ এলাকার বশীর ফকিরের ছেলে।

খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মাবুদ জানান, হেডম্যান পাড়ার শামসুল আলমের স্ত্রী রোহিঙ্গা দিলারা বেগমের দু:সম্পর্কের ভাইয়ের ছেলে জিয়াবুল হক। আর দিলারার সাথে নিহত আব্দুল জব্বারের পরকীয়া ছিল। শনিবার রাতে আব্দুল জব্বারের সাথে গোপনে কথা বলছিল দিলারা সেটা দেখে কিপ্ত হয়ে আব্দুল জব্বারকে ধারালো দা‘ দিয়ে কোপিয়ে আহত করে জিয়াবুল। তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার করে জব্বারকে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে জব্বার মারাযায়। জব্বারের হামলার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় রোহিঙ্গা যুবক জিয়াবুলকে আটক করে রামু থানায় সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রামু থানার উপ-পরিদর্শক ছানা উল্লাহ জানান, আটক জিয়াবুল হক মিয়ানমারের ফকিরা বাজার এলাকার মীর আহমদের ছেলে। গত দুই মাস আগে তারা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। তখন থেকে দুঃসম্পর্কের ফুফু দিলারার বাসায় ছিল জিয়াবুল। নিহত জব্বারের লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রাখা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •