cbn  

অনলাইন ডেস্ক:

ভারতের বীরভূমের ইলামবাজারে গর্ভে কন্যাভ্রূণ থাকায় রুমা সেন নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ। কন্যাভ্রূণ জানার পরই ওই গৃহবধূর পেটে লাথি মারা হয় বলে দাবি বাপের বাড়ির আত্মীয়দের। পাশাপাশি, হত্যাকে আত্মহত্যা দেখাতে দেহ ঝুলিয়ে রাখা হয় বলেও অভিযোগ মেয়েটির পরিবারের।
পরিবার সূত্রে খবর, পেশায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী বিশ্বনাথ নন্দীর সঙ্গে বিয়ে হয় রুমা সেনের। কয়েকদিন আগেই স্বামী এবং ননদ অন্তঃসত্ত্বা ওই গৃহবধূকে নিয়ে গিয়ে আল্টা সোনোগ্রাফি করান। সেখানেই তাঁরা কন্যাভ্রূণের কথা জানতে পারেন বলে দাবি আত্মীয়দের।

তাঁদের আরও দাবি, গত বুধবার বাড়িতে ফোন করে আতঙ্কে রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন রুমা। ওই দিনই তাঁর মৃত্যু হয়। ঘটনায় স্বামী এবং ননদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শ্বশুর ও শাশুড়ি পলাতক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •