বিশেষ প্রতিবেদকঃ

খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট মো.কামরুল ইসলাম এমপি বলেছেন, এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী ও মিল মালিকরা দেশে কৃত্রিম খাদ্য সংকট সৃৃষ্টি করেছিল। মূল্য বৃদ্ধি করে মানুষকে কষ্ট দিয়েছে। এখন দ্রব্যমূল্য নিম্নমুখী। দেশে কোন খাদ্য সংকট নেই। রোহিঙ্গাদের আমরা সাহায্য করছি। রোহিঙ্গাদের সাহায্য করতে আমাদের কোন কষ্ট হচ্ছে না। সরকারী মজুদ ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। কাজেই রোহিঙ্গাদের খাদ্য বিতরণে আমাদের কোন ধরনের সংকটে পড়তে হবেনা।

শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ২নং ত্রাণ বিতরণ কেন্দ্রে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। এসময় ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ১৫ টন চাল, ১৫ টন আলু, শাড়ী, লুঙ্গি, টি-শার্ট বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক কামাল চৌধুরী, ডাক্তার দিলীপ রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, প্রচার সম্পাদক আক্তার হোসেন সহ নেতৃবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •