cbn  

মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:
লামা উপাজেলায় গৃহবধূ সাহেদা বেগম হত্যা মামলার এজাহার নামীয় দুই পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের রইঙ্গাঝিরি ও কালাপাড়া এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো- শফি আলম প্রকাশ পুতু (৪০) ও এজাহার মিয়া (৩৫)। শফি আলম লাইল্যারমার পাড়ার বাসিন্দা মৃত আবু সামার ছেলে ও এজাহার মিয়া রইঙ্গামুখ এলাকার বাসিন্দা মো. ইসলামের ছেলে।

সূত্র জানায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ৫ জুন বিকাল ৪টার দিকে লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের সাফেরঘারা এলাকার বাসিন্দা মনোহর আলম প্রকাশ মনুর ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম ও তার স্ত্রী সাহেদা বেগমের ওপর হামলা করে প্রতিপক্ষ। এতে স্ত্রী ও ছেলে উভয় গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাহেদা বেগম মারা যান। পরে মনোহর আলম বাদী হয়ে এ ঘটনায় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. নাছির উদ্দিন, শফি আলম প্রকাশ পুতু ও এজাহার মিয়াসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ০২, তারিখ- ২১/০৬/২০১৭ইং। মামলার পর থেকে আসামীরা পলাতক ছিলেন। এক পর্যায়ে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার বাইশারী ইউনিয়নের কাগুজিখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. জাকির হোসেনের নেতৃত্বে সঙ্গীয় সদস্যরা বৃহস্পতিবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে শফি আলম প্রকাশ পুতুকে রইঙ্গারমুখ ও বিকালে এজাহার মিয়াকে কালা পাড়া থেকে গ্রেফতার করে লামা থানায় সোপর্দ করেন।

মামলার বাদী মনোহর আলম বলেন, মামলার পরে আসামীরা গ্রেফতার না হওয়ায় প্রকাশ্যে ঘুরাফেরাসহ আমাদেরকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন হুমকি প্রদর্শন করছে। অন্য আসামীরাও এলাকায় গা ঢাকা দিয়ে আছে। তারা যে কোন সময় আমার ও আমার পরিবারের ওপর মামলা হামলা করতে পারে।

হত্যা মামলার দুই আসামীকে গ্রেফতারের সত্যতা লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এস্আই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. গিয়াস উদ্দিন নিশ্চিত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •