রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী মহান কাজ করেছেন -পরিবেশ ও বন মন্ত্রী

ইমাম খাইর, সিবিএন:
মানবতা বিবেচনায় রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান কাজ করেছেন বলে মন্তব্য করেন জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান এবং পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু। তিনি বলেন, যে মুহুর্তে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে সে মুহুর্তে বিকল্প উপায় ছিলনা। রোহিঙ্গারা আশ্রয় না পেলে ঝোঁপঝাঁড় ও নাফ নদীতে লাশ পড়তো।
বুধবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সরকার যে অমানবিক আচরণ করছে তা বিশ্বসভ্যতাকে হার মানিয়েছে। বর্বর আচরণে আমরা স্বম্ভিত।
রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার কারণে বন উজাড় ও পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এই মুহুর্তে এই বিষয়ে কথা বলা ঠিক হবেনা। কারণ মিয়ানমারের সহিংসতার ঘটনায় আমাদের দেশের পরিবেশের যেমন ক্ষতি হয়েছে তাদেরও অনেক ক্ষতি হয়েছে। এ সময় তিনি রোহিঙ্গা শিবিরে সেনা মোতায়েনের ফলে ত্রাণ বিতরণসহ সকল কাজে সুন্দর ও সুশৃঙ্খল পরিবেশের প্রশংসা করেন। এ জন্য সেনা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান।
পরিবেশ ও বন মন্ত্রী বুধবার সকাল ১০ টায় সড়ক পথে রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে যান। সেখানে প্রায় দেড় ঘন্টা সময় কাটান। এ সময় খোঁজ খবর নেন রোহিঙ্গাদের খাবার, স্যানিটেশন, চিকিৎসাসেবার। মন্ত্রীর সফরসঙ্গি হিসেবে ছিলেন জাতীয় পার্টির (জেপি)র প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক এএমপি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্রথম চেয়ারম্যান এএইচ সালাহউদ্দিন মাহমুদ।
জেপির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু উখিয়ার রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন শেষে টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প/বসতি এবং ক্ষতিগ্রস্ত বনাঞ্চল পরিদর্শন করেন। দুপুরে টেকনাফ বন বিভাগের রেস্ট হাউজে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন। এ সময় চট্টগ্রাম বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ডঃ জগলুল হোসেন, কক্সবাজার (দক্ষিণ) বন বিভাগের কর্মকর্তা মোঃ আলী কবির, কক্সবাজার (উত্তর) বন বিভাগের কর্মকর্তা হক মাহবুব মোর্শেদ, উপকূলীয় বন বিভাগীয় কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবিরসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। বিকালে সড়ক পথে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে কক্সবাজার ত্যাগ করেন।

 

সর্বশেষ সংবাদ

জেলা সদর হাসপাতালের দুর্নীতি তদন্তে দুদক টিম

সৌদি যুবরাজের নির্দেশে মুক্ত হচ্ছেন ২১০০ পাকিস্তানি বন্দি

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে জবি রণক্ষেত্র, সাংবাদিকসহ আহত ৩০

কাশ্মীরের পক্ষ নেয়ায় ধর্ষণের হুমকি, অতঃপর নিখোঁজ শিক্ষিকা

ভারতে না গিয়ে দেশে ফিরে গেলেন প্রিন্স সালমান

হাসপাতালের ডাস্টবিনে ৩১ নবজাতকের লাশ

কালিরছড়ায় একটি ব্রীজের অভাবে দূূর্ভোগে ৫ সহস্রাধিক মানুষ

রাঙামাটিতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯৩ প্রার্থী

সালমান মুক্তাদিরের খোঁজ চাইলেন আইসিটি মন্ত্রী

কলাতলী-মেরিন ড্রাইভ সড়ক সংস্কার কাজ চলছে মন্থর গতিতে

‘বিদেশের মাটিতে সিবিএন যেন এক টুকরো বাংলাদেশ’

বারবাকিয়া রেঞ্জের উপকারভোগীদের মাঝে চেক বিতরণ

কাতারে কক্সবাজারের কৃতি সন্তান ড. মামুনকে নাগরিক সমাজের সংবর্ধনা

এনজিওদের দেয়া ত্রাণের পণ্য খোলাবাজারে বিক্রি করছে রোহিঙ্গারা

পেকুয়ায় ইয়াবাসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গ্রেফতার

উখিয়ায় পাহাড় চাপায় আবারো শ্রমিক নিহত

চট্টগ্রামে ৩দিনেও মেরামত হয়নি গ্যাস লাইন, চরম ভোগান্তি

ঝাউবনে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতিকালে ১২ মামলার আসামী নেজাম গ্রেফতার

চকরিয়ায় ১৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

নাইক্ষ্যংছড়িতে ১৫ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল